২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

জাপানকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন যুক্তরাষ্ট্র


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ প্রতিশোধটা মধুরই হলো যুক্তরাষ্ট্রের। গত আসরে জাপানের কাছে হেরে শিরোপা খুইয়েছিল মার্কিন মেয়েরা। এবার কানাডায় অনুষ্ঠিত আসরে সেই জাপানকেই ফাইনালে ৫-২ গোলে উড়িয়ে দিয়ে ফিফা মহিলা বিশ্বকাপ ফুটবলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

যুক্তরাষ্ট্রের শ্রেষ্ঠত্বের মূল রূপকার অধিনায়ক কার্লি লয়েড। মাত্র ১৩ মিনিটের ব্যবধানে হ্যাটট্রিক করে তিনি জাপানকে লড়াই থেকে ছিটকে দেন। এটি মহিলা বিশ্বকাপে যুক্তরাষ্ট্রের রেকর্ড সর্বোচ্চ তৃতীয় শিরোপা। অর্থাৎ তিনবার বিশ্বকাপ জিততে পারেনি আর কোন দেশ। আর বিশ্বকাপের ফাইনালে এটাই সবচেয়ে বেশি গোলের ঘটনা। এর আগে ১৯৯১ ও ১৯৯৯ আসরেও চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। ৬ গোল করে টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ গোলের পাশাপাশি সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার জিতেছেন যুক্তরাষ্ট্রের অধিনায়ক লয়েড। সেরা গোলরক্ষক হয়েছেন চ্যাম্পিয়ন দলের হোপ সোলো। ফেয়ার প্লে এ্যাওয়ার্ড জয় করেছে ফ্রান্স।

মূলত লয়েডের ইতিহাস গড়া পারফর্মেন্সের কাছেই নতি স্বীকার করতে হয়েছে জাপানকে। বাংলাদেশ সময় সোমবার ভোরে কানাডার ভ্যাঙ্কুভারে অনুষ্ঠিত ম্যাচে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে নারী বিশ্বকাপের ফাইনালে হ্যাটট্রিকের কীর্তি গড়েন লয়েড। ১৯৯৯ সালের পর আবারও নারী বিশ্বকাপের শিরোপা ঘরে তুলল যুক্তরাষ্ট্র। ফাইনাল চিত্রনাট্যের পুরোটাই দখলে নেন লয়েড। তিনি যেন একাই গতবারের চ্যাম্পিয়ন জাপানকে ছত্রখান করে দেন। ম্যাচ শুরুর তৃতীয় মিনিটেই যুক্তরাষ্ট্রকে এগিয়ে দেন লয়েড। পঞ্চম মিনিটে জাপানী রক্ষণের ভুলে পেয়ে যান নিজের ও দলের দ্বিতীয় গোল। ১৪ মিনিটে যুক্তরাষ্ট্রকে ৩-০ গোলে এগিয়ে দেন লরেন চেনি হলিডে। ১৬ মিনিটে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন মার্কিন অধিনায়ক। মাত্র ১৬ মিনিটে চার গোলে পিছিয়ে পড়া কোন দলের ম্যাচে ফেরার আশা করা দুষ্কর। জাপানী মেয়েরাও চার গোল খেয়ে হয়ে পড়ে হতদ্যোম। তবে ২৭ মিনিটে ইউকি ওজিসি একটি গোল শোধ করলে কিছুটা গা-ঝাড়া দিয়ে ওঠে জাপানীরা।

বিরতির পর ৫২ মিনিটে যুক্তরাষ্ট্রের জুলি জনসন নিজেদের জালেই বল জড়ালে ব্যবধান হয় ৪-২। এ সময় অনেকেই হয়ত ভেবেছিলেন ম্যাচটা আরও উত্তেজনাকর হতে চলেছে। কিন্তু না, দুই মিনিট বাদে যুক্তরাষ্ট্রকে ৫-২ গোলে এগিয়ে দিয়ে শিরোপা নিশ্চিত করেন টবিন হেথ। জাপানকে হারিয়ে তৃতীয়বারের মতো ফিফা মহিলা বিশ্বকাপের শিরোপা জয় করায় যুক্তরাষ্ট্র নারী ফুটবল দলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটার বার্তায় ফুটবল দলের সাফল্যে খুশি মার্কিন প্রেসিডেন্ট লিখেছেন, অসাধারণ জয়! দারুণ খেলেছে কার্লি লয়েড! তোমাদের জন্য গর্বিত দেশ। শুধু দলের প্রশংসাই করেননি। বিজয়ী দলকে হোয়াইট হাউসে আসার আগাম নিমন্ত্রণও দিয়ে রেখেছেন ওবামা।

ম্যাচ শেষে ইতিহাস গড়া যুক্তরাষ্ট্রের অধিনায়ক লয়েড বলেন, আমি দারুণ খুশি। আমরা আবারও বিশ্বসেরা হয়েছি। দলের সবার ঐকান্তিক প্রচেষ্টার ফসল এটা। গতবার আমরা জাপানের কাছে হেরেছিলাম। এবার তাদের হারিয়েই শিরোপা জিতলাম। ফাইনালে হ্যাটট্রিক প্রসঙ্গে তিনি বলেন, অনেক ভাল লাগছে। তবে আমি বেশি খুশি দল চ্যাম্পিয়ন হওয়ায়। রানার্সআপ জাপান দলের কোচ নোরিও সাসাকির লক্ষ্য এখন অলিম্পিক গেমস। তিনি ২০১৬ সালের অলিম্পিকে স্বর্ণপদক জয়ের প্রত্যয়ের কথা শুনিয়েছেন।

১৯৯১ সালে যাত্রা শুরুর পর ফিফা মহিলা বিশ্বকাপে প্রধান্য দেখিয়ে চলেছে যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানি। টুর্নামেন্টের ইতিহাস পর্যালোচনা করলে দেখা যায় মেয়েদের শ্রেষ্ঠত্বের এই আসরে এখন পর্যন্ত সেরা সাফল্য দেখিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। চীনে অনুষ্ঠিত প্রথম বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পাশাপাশি দেশটি শিরোপা লাভ করে ১৯৯৯ সালে নিজ দেশে অনুষ্ঠিত আসরেও। এছাড়া ১৯৯৫, ২০০৩ ও ২০০৭ বিশ্বকাপে যুক্তরাষ্ট্র তৃতীয় স্থান অধিকার করে। আর ২০১১ আসরে হয় রানার্সআপ। অর্থাৎ এ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হওয়া প্রতি বিশ্বকাপেই সেরা তিন-এ থেকেছে যুক্তরাষ্ট্র। প্রায় দেড় যুগ মুকুট হাতছাড়া হওয়া যুক্তরাষ্ট্র আবারও তা পুনরুদ্ধার করেছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: