মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১০ আশ্বিন ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

উত্তর সিনাইয়ে মিসরীয় বাহিনীর হামলায় ৬৩ জঙ্গী নিহত

প্রকাশিত : ৭ জুলাই ২০১৫

মিসরের উত্তর সিনাইয়ে রবিবার দেশটির সামরিক বাহিনীর বিমান হামলা ও স্থল অভিযানে ৬৩ জঙ্গী নিহত হয়েছে। দেশটির নিরাপত্তা সূত্রগুলো এ খবর জানিয়েছে। খবর ওয়েবসাইটের।

সেনাবাহিনী ২০১৩ সালে প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসিকে উৎখাতের পর সাম্প্রতিক সময়ে নিরাপত্তা বাহিনী ও ইসলামপন্থী জঙ্গীদের মধ্যে লড়াই হয়েছে সিনাইয়ে। রবিবার নিরাপত্তা সূত্র জানায়, শেখ জুয়েদ ও রাফা শহরের মধ্যে গ্রামগুলোতে সৈন্যরা ৬৩ জনকে হত্যা করে। চারটি জঙ্গী ঘাঁটিতে এ্যাপাচি হেলিকপ্টার ও স্থল সৈন্যরা হামলা চালায়। মুরসির উৎখাতের পর ইসলামিক স্টেটের (আইএস) মিসর শাখা কয়েক শ’ সৈন্য ও পুলিশকে হত্যা করেছে। সম্প্রতি তারা সিনাই আইএস নাম ধারণ করেছে। বিদ্রোহ শুরু হওয়ার পরে গত সপ্তাহে সোমবার কায়রোতে একটি গাড়িবোমা হামলায় মিসরীয় শীর্ষ প্রসিকিউটর নিহত হন। সিনাই হামলার জন্য মুরসির মুসলিম ব্রাদারহুডকে অভিযুক্ত করেছে মিসরীয় সরকারী কর্মকর্তারা। ব্রাদারহুড বলেছে, তারা শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করছে। রবিবার মিসরের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, সরকার ব্রাদারহুডের ১২ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে। তারা পুলিশ সদস্য, সৈন্য ও পুলিশ ঘাঁটিতে হামলা চালানোর পরিকল্পনা করেছিল।

নাইজিরিয়ায় সন্ত্রাসী হামলা, পাশে থাকার অঙ্গীকার যুক্তরাষ্ট্রের

নাইজিরিয়ায় একের পর এক সন্ত্রাসী হামলার পর রবিবার যুক্তরাষ্ট্র দেশটির পাশে থাকার অঙ্গীকার এবং ভয়াবহ এই হামলার সঙ্গে জড়িতদের বিচারের মুখোমুখি দাঁড় করানোর আহ্বান জানিয়েছে। সন্ত্রাসী এসব হামলার জন্য জঙ্গী সংগঠন বোকো হারামকে দায়ী করা হয়েছে। ইসলামপন্থী জঙ্গীরা বিগত কয়েক দিন ধরে নাইজিরিয়ার বোর্নো রাজ্যের মসজিদ, গ্রাম ও বাজারে একের পর এক হামলা শুরু করেছে। এতে ২শ’ জনের বেশি লোক প্রাণ হারিয়েছে।

রবিবার দেশটির গোলযোগপূর্ণ উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় নগরী পোতিসকুমে এক আত্মঘাতী হামলাকারী একটি চার্চে ঢুকে শরীরে বেঁধে রাখা বিস্ফোরকের বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে সেখানে ৫ জন নিহত হয়। মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র জন কিরবি এক বিবৃতিতে বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র নাইজিরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলে বোকো হারামের সাম্প্রতিক হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে।’ বিবৃতিতে নিহতদের পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘আমরা আগের হামলাগুলোর মতোই এই হামলায় জড়িতদের খুঁজে বের করে তাদের বিচারের মুখোমুখি দাঁড় করাতে নাইজিরিয়ার প্রচেষ্টাকে সমর্থন দিয়ে যাব।’ –এএফপি

প্রকাশিত : ৭ জুলাই ২০১৫

০৭/০৭/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: