১৮ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে গোলাগুলি


অনলাইন ডেস্ক ॥ ভারত ও পাকিস্তান সীমান্তে (লাইন অব কন্ট্রোল- নিয়ন্ত্রণ রেখা) দু’ দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর মধ্যে কয়েক দফায় গোলাগুলি হয়েছে। রোববার (৫ জুলাই) রাতভর এক পক্ষের গুলি ও মর্টার শেলের ছোঁড়ার জবাবে পাল্টা গুলি ও মর্টার শেল ছুঁড়েছে আরেক পক্ষও। তবে, উভয়পক্ষই উস্কানির জন্য পরস্পরকে অভিযুক্ত করছে।

ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ ও পাকিস্তানি সীমান্তরক্ষী বাহিনী রেঞ্জার্সের বরাত দিয়ে আজ সোমবার সকালে দু’দেশের সংবাদমাধ্যম এ খবর দিয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, শান্তিচুক্তি ভঙ্গ করে রেঞ্জার্স নিয়ন্ত্রণ রেখার কাছে জম্মু-কাশ্মীরের অর্নিয়া সেক্টরে ছয়টি বর্ডার আউট পোস্ট (বিওপি) লক্ষ্য করে গুলি ও মর্টার শেল নিক্ষেপ করেছে। তারা বিওপি লক্ষ্য করে ৮৮ এমএম মর্টার শেল ও কিছু মাঝারি আগ্নেয়াস্ত্রের গুলি ছোঁড়ে। এতে সীমান্ত সংলগ্ন গ্রামগুলোতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরে এর পাল্টা মোক্ষম জবাব দিতে থাকে বিএসএফও।

আর পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম জানায়, কোনো ধরনের উস্কানি ছাড়াই শিয়ালকোট সীমান্তের কাছে চারোয়া এলাকায় পাকিস্তানি গ্রাম লক্ষ্য করে মর্টার শেল ছোঁড়ে বিএসএফ। এতে বেশ কিছু বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তবে, এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

বিএসএফের একজন শীর্ষ কর্মকর্তা জানান, রেঞ্জার্সের হামলার মুখে অবস্থান নিয়ে পাল্টা জবাব দেয় বিএসএফও। রোববার রাত থেকে শুরু হওয়া এই গোলাগুলি চলে সোমবার ভোর ৫টা পর্যন্ত। তবে, এতে কোন হতাহত বা ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি।

তবে, রেঞ্জার্সের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা দাবি করেন, রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা থেকে ‍রাত ৮টা পর্যন্ত বিএসএফ সদস্যরা সীমান্তের বেসামরিক লোকজনকে লক্ষ্য করে গুলি ও মর্টার শেল ছোঁড়ে। কোনো হতাহতের ঘটনা না ঘটলেও চারোয়ায় বেশ কিছু বাড়িঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিএসএফের আক্রমণের পাল্টা জবাব দেওয়া শুরু করে রেঞ্জার্সও।

রাতভর গোলাগুলি হলেও সোমবার সকালে নতুন করে কোনো গোলাগুলির খবর পাওয়া যায়নি।