২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

২০১৮ সালের আগেই ঢাকা-যশোর, ঢাকা- কুয়াকাটা চার লেন সড়ক হবে ॥ সংসদে ও. কাদের


সংসদ রিপোর্টার ॥ ২০১৮ সালে পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ সম্পন্ন হওয়ার আগেই ঢাকা-যশোর এবং ঢাকা-কুয়াকাটা পর্যন্ত চার লেন সড়ক নির্মাণ করা হবে। এছাড়া ভবিষ্যতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কটি সিক্স লেন এক্সপ্রেসওয়ে হবে।

রবিবার জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তরপর্বে সাবেক চীফ হুইপ আবুল হাসনাত আবদুল্লাহর প্রশ্নের উত্তরে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এ তথ্য জানান। তিনি জানান, আমাদের মেগা প্রকল্প পদ্মা সেতু। ২০১৮ সালে এই সেতুর নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার আগেই ঢাকা-যশোর চার লেন সড়ক হবে। ঢাকা থেকে কুয়াকাটাও চার লেন সড়ক হবে।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, ভবিষ্যতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কটি সিক্স লেন এক্সপ্রেসওয়ে হবে। কর্ণফুলী নদীর টানেল চুক্তি করার সময় দুটি চায়না কোম্পানি ছয় লেন করার প্রস্তাব দিয়েছে।

নোয়াখালীর সংসদ সদস্য মামুনুর রশীদ কিরনের প্রশ্নের জবাবে সেতুমন্ত্রী জানান, ঢাকা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে কুতুবখালী পর্যন্ত এ্যালিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণে প্রথম ধাপের কাজ শুরুর ১২ মাসের মধ্যে দ্বিতীয় ধাপের জমি হস্তান্তর করতে না পারলে বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানকে প্রতিদিন ১০ হাজার ডলার বিলম্ব ফি দিতে হয়।

বিআরটিসি লাভজনক ॥ সংসদ সদস্য সেলিম উদ্দিনের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানান, বিআরটিসি একটি সেবামূলক রাষ্ট্রীয় সংস্থা। বিভিন্ন দুর্যোগকালীন সময়ে বিশেষ করে হরতাল-অবরোধ, বিরোধী রাজনৈতিক জোটের জ্বালাও-পোড়াও এবং ভাংচুরজনিত কারণে প্রায়শই বিআরটিসির বিপুল পরিমাণ রাজস্ব ক্ষতি হয়। এসব ক্ষতি কাটিয়ে বিআরটিসি বর্তমানে অপারেটিং লাভেই পরিচালিত হচ্ছে।

তিনি জানান, ৩০০টি দ্বিতল ও ১০০টি আর্টিকুলেটেড বাস এবং ৫০০টি ট্রাক সংগ্রহ করার চিন্তাভাবনা রয়েছে। বর্তমানে ৪৮ জেলায় বিআরটিসির বাস সার্ভিস চালু রয়েছে। ভবিষ্যতে সকল জেলায় বাস সার্ভিস সম্প্রসারণ করা হবে। বিআরটিসির ২৫টি বাসে ওয়াইফাই সার্ভিস চালু করা হয়েছে।

সংসদ সদস্য আবু জাহির ও ডাঃ রুস্তম আলী ফরাজীর পৃথক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, আগে জেলা শহরের সড়কের জন্য তেমন বরাদ্দ ছিল না। নতুন অর্থবছরে ৫০০ কোটির টাকার মতো বরাদ্দ আছে। তাই জেলা শহরের সড়ক সংস্কার দ্রুত করা যাবে। তিনি বলেন, দেশের সব রাস্তাকে কংক্রিট করতে অনেক অর্থের প্রয়োজন। রাস্তা মেরামতে কিছু অনিয়ম এবং বৃষ্টির কারণে প্রায়শই রাস্তাঘাট নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। তবে দ্রুতই সেসব সংস্কার করা হচ্ছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: