২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

শেখ হাসিনার নেতৃত্ব বিশ্ব দরবারে প্রশংসিত ॥ নাসিম


স্টাফ রিপোর্টার, সিরাজগঞ্জ ॥ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বাংলাদেশের জঙ্গী দমনে শেখ হাসিনার নেতৃত্ব বিশ্ব দরবারে প্রশংসিত এবং অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপিত হয়েছে উল্লেখ করে বিএনপিকে গণতান্ত্রিক ধারার রাজনীতিতে ফিরে আসার আহ্বান জানিয়েছেন। দেশের দারিদ্র্য বিমোচন, স্বাস্থ্য শিক্ষাসহ যোগাযোগ ও কৃষিখাতে ব্যাপক উন্নয়নের মাপকাঠি ধরে বিশ্বব্যাংক বাংলাদেশকে নিম্ন-মধ্য আয়ের দেশের স্বীকৃতি দিয়ে এ দেশের জনগণ এবং শেখ হাসিনাকে সম্মানীত করেছেন। তিনি এও বলেছেন মুক্তিযুদ্ধের শক্তি ক্ষমতায় এবং দেশ পরিচালনায় ধারাবাহিকতা থাকলে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ একটি মধ্যম আয়ের সমৃদ্ধশালী দেশে পরিণত হবে। তিনি শনিবার দুপুরে সিরাজগঞ্জে জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় প্রধান অতিথির উদ্বোধনী বক্তব্যে এ কথা বলেছেন। দেশের রাজনৈতিক পরিম-ল শান্ত এবং আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক বিরাজ করায় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম সিরাজগঞ্জ জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা থেকে প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ এবং অভিনন্দনও জানিয়েছেন।

সিরাজগঞ্জ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও জেলা প্রশাসক বিল্লাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় সাবেক মন্ত্রী ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল লতিফ বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া, সেলিনা বেগম স্বপ্না এমপি, পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহমেদ, এ্যাডভোকেট বিমল কুমার দাসসহ জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তাগণ নিজ নিজ দফতরের উন্নয়ন কর্মকা- তুলে ধরে বক্তব্য দেন। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান বিগত সভার কার্যবিবরণী তুলে ধরেন। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বেগম খালেদা জিয়া আন্দোলনের একজন ব্যর্থ নেত্রী উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন বিএনপি-জামায়াতের জ্বালাও পোড়াও এবং নৈরাজ্য না থাকলে দেশ আরও এগিয়ে যেত। তিনি বিশ্বব্যাংকের উদ্ধৃতি টেনে বলেন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ নিম্ন আয়ের দেশ থেকে নিম্ন-মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। খুব শীগ্রই বাংলাদেশ মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হবে। তিনি এও বলেছেনÑ ধারাবাহিকভাবে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে বাংলাদেশ একটি সমৃদ্ধশালী দেশে পরিণত হবে।

ধান চাষে বছরে ১১ হাজার কোটি টাকা সাশ্রয় সম্ভব

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাজীপুর, ৪ জুলাই ॥ সনাতন পদ্ধতির পরিবর্তে আধুনিক ও উন্নত কৃষি যন্ত্রপাতি ব্যবহারের মাধ্যমে দেশে প্রতি বছর ধান চাষে ১১ হাজার কোটি টাকা সাশ্রয় করা সম্ভব। ইতোমধ্যে বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট (ব্রি) উদ্ভাবিত কৃষি যন্ত্রপাতি ব্যবহার করায় দেশের ২৪টি উপজেলায় ধান চাষাবাদে বছরে ১৭ দশমিক চার কোটি টাকা সাশ্রয় হয়েছে এবং বিশ হাজার কৃষক উপকৃত হয়েছে। সেই সঙ্গে কৃষকদের কায়িক শ্রম লাঘব হয়েছে, অপচয় কমেছে এবং আয় বেড়েছে। শনিবার ব্রি’র খামার যন্ত্রপাতি ও ফলনোত্তর প্রযুক্তি বিভাগের কৃষি যন্ত্রপাতি উদ্ভাবন ও সম্প্রসারণ (এফএমটিডি) প্রকল্পের সমাপনী কর্মশালায় এ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরা হয়। গাজীপুরস্থিত ব্রি’র অডিটোরিয়ামে মহাপরিচালক ড. জীবন কৃষ্ণ বিশ্বাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব শ্যামল কান্তি ঘোষ এবং বিশেষ অতিথি উপস্থিত ছিলেন কৃষি, পানিসম্পদ ও পল্লী প্রতিষ্ঠান বিভাগের প্রধান সরদার ইলিয়াস হোসেন ও কৃষি মন্ত্রণালয়ের পরিকল্পনা অণুবিভাগের যুগ্ম প্রধান মোঃ মনজুরুল আনোয়ার।