২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

৬ বাড়ি ভাংচুর নড়াইলে দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষ ॥ নারীসহ আহত ৬


নিজস্ব সংবাদদাতা, নড়াইল, ৩ জুলাই ॥ লোহাগড়ায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’দল গ্রামবাসীর মধ্যে ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় মহিলাসহ উভয়পক্ষের ৬ জন আহত হয়েছে। প্রতিপক্ষের হামলায় ৬টি বসতবাড়ি ভাংচুর করা হয়েছে। আহতদের লোহাগড়া, নড়াইল ও খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

পুলিশ ও গ্রামবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার দিঘলিয়া ইউপি’র কোলা গ্রামের সুলতান মৃর্ধার স্ত্রীর সঙ্গে তার আপন ভাই সাখাওয়াত মৃর্ধার স্ত্রীর মধ্যে টিউবওয়েলের পানি নিয়ে বৃহস্পতিবার ঝগড়া হয়। এর জের ধরে শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কোলা গ্রামের সুলতান মৃর্ধার জামাই ফরিদ শেখ কোলা গ্রামে এসে চাচা শ্বশুর সাখাওয়াত মৃর্ধা ও তার স্ত্রীকে মারধর করে। এক পর্যায়ে গ্রামবাসী জামাই ফরিদ শেখকে ধরে মারধর করে ও তাকে আটকিয়ে রাখে।

জানার পর সাবেক মেম্বার দুলোল ঠাকুর ও এম এম রাশেদ হাসানের নেতৃত্বে ৭০/৮০ জনের একদল সন্ত্রাসী রামদা, ছ্যানদা, লাঠি ও হকিস্টিক নিয়ে কোলা গ্রামে হামলা চালিয়ে মনু মিয়া শেখ, মাহবুব শেখ, ইস্রফিল শেখ, শাহবুর শেখ, বাবুল শেখ ও ফেলুন শেখের বাড়ি ভাংচুর করে এবং ফিল্মী স্টাইলে ফরিদকে উদ্ধার করে মোটরসাইকেল নিয়ে পার-মল্লিকপুর গ্রামে চলে যায়। এ সময় উভয় গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে মনু মিয়া শেখ, জাকির শেখ, আলম চৌধুরী, শাহনাজ বেগম, আরমান ঠাকুর, ফরিদ শেখ আহত হয়।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: