২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

শেষ টেস্টে মাঠে নামছে পাক-শ্রীলঙ্কা


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ পাল্লেকেল্লেতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টেস্টে আজ মাঠে নামছে পাকিস্তান। এই ম্যাচে যে দলই জয় পাবে তারাই ভাসবে শিরোপা জয়ের উচ্ছ্বাসে। লঙ্কানদের বিপক্ষে ১০ উইকেটের বড় জয়ে টেস্ট সিরিজ শুরু করেছিল পাকিস্তান। কিন্তু পারফর্মেন্সের সেই ধারাবাহিকতা দ্বিতীয় ম্যাচে ধরে রাখতে পারেনি মিসবাহ-উল হকের দল। বরং দ্বিতীয় ম্যাচে পাকিস্তানকে ৭ উইকেটে হারিয়ে সমতায় ফিরে সিংহলীরা। যে কারণে সিরিজের শেষ ও তৃতীয় ম্যাচটি দুই দলের জন্যই বাঁচা-মরার লড়াই।

পাল্লেকেল্লেতে মাঠে নামার আগে দুই দলেই দেখা যাবে কিছু পরিবর্তন। দীর্ঘ ১৫ বছরের ইতিহাসে এবারই প্রথমবারের মতো কুমার সাঙ্গাকারা এবং মাহেলা জয়াবর্ধনেকে ছাড়াই মাঠে খেলতে নামবে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা। লঙ্কানদের জার্সিতে ১৩২ টেস্ট খেলে কুমার সাঙ্গাকারার ব্যাট থেকে এসেছে ১২,৩০৫ রান। তৃতীয় টেস্টে তার বদলি হিসেবে খেলতে নামবেন আরেক বাঁ-হাতি অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান উপল তারাঙ্গা। ৩০ বছর বয়সী এই লঙ্কান ব্যাটসম্যান তার ১৯তম টেস্টে খেলতে নেমেছিলেন প্রায় এক বছর আগে। যে কারণে এই ম্যাচটা তার জন্য বেশ চ্যালেঞ্জিং। ২০০০ সালের জুলাইয়ে সাঙ্গাকারার অভিষেক ঘটেছিল। আর ১৫ বছরের মধ্যে সবসময়ই দলে পেয়েছে সাঙ্গাকারা কিংবা মাহেলা জয়াবর্ধনেকে। কিন্তু এবারই প্রথমবারের মতো তাদের দুজনকে ছাড়াই খেলতে নামবে শ্রীলঙ্কা। আর মাহেলা-সাঙ্গাকে ছাড়া খেলার অভিজ্ঞতাটাকে অদ্ভুত বলেই মন্তব্য করেছেন শ্রীলঙ্কার সহ-অধিনায়ক লাহিরু থিরিমান্নে।

এ বিষয়ে ম্যাচের আগের সংবাদ সম্মেলনে থিরিমান্নে বলেন, ‘মাহেলা এবং সাঙ্গাকে ছাড়া খেলার অভিজ্ঞতাটা সত্যিই অদ্ভুত। তবে আমাদের দলে কিছু তরুণ প্রতিভাবান খেলোয়াড় রয়েছে যারা এই মুহূর্তে দলের জন্য ভূমিকা রাখতে প্রস্তুত।’ এরপরই উপল থারাঙ্গার কথা টেনে থিরিমান্নে বলেন, ‘উপল দীর্ঘদিন ধরেই দলের সঙ্গে আছেন এবং টেস্ট খেলার যোগ্যতা রাখেন। চামিরার (দুশমন্ত) খেলাটা ফিফটি-ফিফটি। তার খেলার বিষয়টি এখনও নিশ্চিত নয়।’ উইকেট প্রসঙ্গে সহ-অধিনায়কের অভিমত হলো, ‘ব্যাটিংয়ের জন্য এটা ভাল উইকেট। তবে শুরুতে পেসারদের ভাল করতে সহায়তা করবে। আমরা সম্ভবত তিন সিমার এবং একজন স্পিনার নিয়ে খেলতে পারি।’

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: