১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ছোটবেলার ঈদ


উৎসব মানেই আনন্দ। আর যে কোন উৎসবমুখী আনন্দের রেশ বেশি করে স্ফুরিত হয় শিশুদের মনে। বিশেষ করে বালক, বালিকা এবং কিশোর-কিশোরীদের মনে যে উচ্ছ্বাস পরিলক্ষিত হয় তা আর অন্য কারও মধ্যে তেমনটি চোখে পড়ে না। ছোটবেলাকার ঈদের মজাই যেন অন্য রকম।

সেদিকে লক্ষ্য রেখেই ঈদের আনন্দকে বাড়িয়ে দিতে ফ্যাশন হাউসগুলো নেয় বাড়তি প্রস্তুতি। এ প্রস্তুতি প্রতি ঈদেই লক্ষ্য করা যায়। অবশ্য সোনামণিদের ঈদের পোশাকে প্রতিবারই ফ্যাশন ডিজাইনাররা নতুন নতুন মোটিফের উৎসারণ ঘটায়। আর এই আকর্ষণীয় ডিজাইনের ড্রেস বিভিন্ন আউটলেট থেকে বাচ্চাদের জন্য গভীর আগ্রহ নিয়ে ক্যালেক্ট করেন অভিভাবকরা।

অন্যান্য ঈদের মতো এই ঈদেও তেমনি ব্যাপক আয়োজন সম্পন্ন করেছে ফ্যাশন হাউসগুলো। এবারের বাচ্ছাদের ঈদ ফ্যাশনে পাঞ্জাবি, ফতুয়া, শার্ট, গেঞ্জির বিশেষ সংগ্রহ অডিটলেটে পাওয়া যাবে। এক্ষেত্রে একটা বিষয় বিশেষভাবে উল্লেখের দাবি রাখে যে- বড়দের মতো ছোটরাও সম্প্রতি ফ্যাশনসচেতন হয়ে উঠেছে। ছোটদের পছন্দকে তাই বাবা- মাকে প্রাধান্য দিয়ে ড্রেস কিনে দিতে হয়। এবং ছোটরা তাতে খুশিও হয়।

একটা সময় ছিল যখন ছোটদের পোশাক কেনার জন্য বাবা-মায়েরা রেডিমেট ড্রেসের শপিং পয়েন্টের ওপর ছিলেন নির্ভরশীল। কিন্তু সময়ের বিবর্তনে এখন সেই ধারা বদলে গিয়ে দেশের প্রতিষ্ঠিত ফ্যাশন ডিজাইনারদের করা পোশাক নির্দিষ্ট ফ্যাশন হাউস থেকে ক্রয় করছেন। দেশীয় মোটিফে সুন্দর ব্যতিক্রমী ডিজাইনের এই পোশাক বহন করে দেশাত্মবোধের বিষয়টিও। অভিভাবকরাও দেশীয় পোশাক কিনতে আগ্রহ নিয়ে খ্যাতনামা আউটলেটে যাচ্ছেন ছোটদের সঙ্গে করে। এদৃশ্য সব উৎসবেই লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এতেই বোঝা যায় ফ্যাশনচেতনা সবার মনকেই ছুঁয়ে যায়।

মডেল : মহত, জাওয়াদ, তাহসিন ও অহনা

পোশাক : ড্রেসকিং