২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৭৫ কোটি টাকার বাজেট


স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৫-১৬ অর্থবছরের জন্য ১৭৫ কোটি ৬০ লাখ টাকার প্রাক্কলিত বাজেট অনুমোদন করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ফাইন্যান্স কমিটি ও সিন্ডিকেট। শুক্রবার বিকেলে নগরীর একটি রেস্টুরেন্টে আয়োজিত ফাইন্যান্স কমিটি ও সিন্ডিকেটের ৫১তম যৌথ সভায় এর অনুমোদন দেয়া হয়। একই সভায় ২০১৪-১৫ অর্থবছরের জন্য ১৭৩ কোটি টাকার সংশোধিত বাজেটও অনুমোদন লাভ করে।

সভায় এফসি ও সিন্ডিকেট সদস্যবৃন্দ বাজেটের বিভিন্ন দিক সম্পর্কে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন এবং দেশে উচ্চশিক্ষা ও গবেষণা উন্নয়নে একটি সময়োপযোগী আধুনিক ধ্যান-ধারণা সংবলিত বাজেট পেশ করায় আলোচকবৃন্দ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। সভায় চবি হিসাব নিয়ামক (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ ফরিদুল আলম চৌধুরী বাজেট উপস্থাপন করেন এবং তা আগামী সিনেট সভায় পেশ করার জন্য অনুমোদন করা হয়।

মৎস্য আমদানিতে সম্পূরক শুল্ক প্রত্যাহার দাবি

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ মৎস্য আমদানির উপর নতুন আরোপিত অতিরিক্ত ৫ শতাংশ শুল্ক প্রত্যাহার করতে অর্থমন্ত্রীর প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে ফিশ ইম্পোর্টার্স এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ। সংগঠনের পক্ষ থেকে বলা হয়, বিগত অর্থবছরে মোট শুল্ক করাদি ছিল ৫৪ দশমিক ৫ শতাংশ। এরসঙ্গে আরও ৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক যুক্ত হওয়ায় আমদানিকৃত মাছের মূল্য বেড়ে যাবে। এতে করে স্বল্প আয়ের সাধারণ মানুষের আমিষের ঘাটতি পূরণ কঠিন হয়ে পড়বে।

ফিশ ইম্পোর্টার্স এ্যাসোসিয়েসন অব বাংলাদেশ সভাপতি আশরাফ হোসেন মাসুদ তার আবেদনে বলেন, দেশে বর্তমানে ১২ লাখ মেট্রিক টন উৎপাদন ঘাটতির বিপরীতে বিদেশ থেকে আমদানি করা মাছের পরিমাণ মাত্র ১ লাখ ৮০ হাজার মেট্রিক টন। এ আমদানি ঘাটতির মাত্র ১৫ শতাংশ মিটিয়ে থাকে। উৎপাদন ঘাটতির কারণে দেশীয় মাছের বাজারমূল্য স্বল্প আয়ের মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে। এ অসামঞ্জস্যতা পূরণে আমদানিকৃত মাছ বিরাট ভূমিকা রাখার পাশাপাশি দেশে আমিষের ঘাটতিও পূরণ করে আসছে।

ভ্যাট না কমালে দোকান বন্ধের হুমকি জুয়েলার্স সমিতির

অথনৈতিক রিপোর্টার ॥ ২০১৫Ñ১৬ অর্থবছরে জুয়েলারি ব্যবসায়ে ৫ শতাংশ ভ্যাট আরোপের তীব্র সমালোচনা করেছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। এ শিল্পকে রক্ষার স্বার্থে সর্বোচ্চ ১.৫ শতাংশ ভ্যাট আরোপের দাবি জানিয়ে বাজুসের সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক খান বলেছেন, ‘আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে এ দাবি মানা না হলে একদিনের জন্য দেশের সকল ব্যবসা বন্ধ রাখা হবে। এর পরও দাবি আদায় না হলে অনির্দিষ্টকালের জন্য ব্যবসা বন্ধ রাখা হবে। জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে শনিবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়। এতে এনামুল হক খান বলেন, ‘৫ শতাংশ ভ্যাট আরোপ করা হলে জুয়েলারি ব্যবসা মারাত্মক ক্ষতির সম্মুখীন হবে। তাই এ শিল্পকে রক্ষার স্বার্থে ১ শতাংশ থেকে সর্বোচ্চ ১.৫ শতাংশ ভ্যাট আরোপ করলে সরকারের রাজস্ব আদায়ও বৃদ্ধি পাবে।’ ট্রেড লাইসেন্স নবায়ন ফি এবং ডিলিং লাইসেন্স নবায়ন ফি পূর্বাবস্থায় বহাল রাখার দাবিও জানান তিনি।