১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

৩২ লাখ গাড়ি তলব করছে টয়োটা-নিশান


এয়ারব্যাগ সমস্যার কারণে ফের বিশ্বব্যাপী ৩২ লাখ গাড়ি তলব করতে যাচ্ছে জাপানের শীর্ষ দুই গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টয়োটা ও নিশান। এয়ারব্যাগ সংশ্লিষ্ট জটিলতায় বিশ্বব্যাপী আটজনের মৃত্যুর কারণে এ সংখ্যক গাড়িকে তলব করা হচ্ছে বলে বৃহস্পতিবার দুপুরে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম। এ বিষয়ে এক বিবৃতিতে টয়োটা জানায়, এয়ারব্যাগ জটিলতায় বিশ্বব্যাপী আটাশ লাখ ৬০ হাজার গাড়ি তলব করা হচ্ছে। একই সমস্যায় প্রায় দুই লাখ গাড়ি তলব করছে নিশান। আর এক লাখ বিশ হাজার গাড়ি তলব করছে দেশটির অপর এক গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মিতসুবিশি। এর আগে গত মে মাসে এয়ারব্যাগ জটিলতায় বিশ্বব্যাপী ৬৫ লাখ গাড়িকে তলব করে টয়োটা ও নিশান। গত মার্চে যুক্তরাষ্ট্রে এক লাখ গাড়ি জরুরী তলব করে জাপানের তৃতীয় বৃহৎ গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হোন্ডা। -অর্থনৈতিক রিপোর্টার

বরিশাল নগরীর উন্নয়নে ৬১ কোটি টাকার প্রকল্প

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ নগরী উন্নয়নে বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের জন্য ৬১ কোটি ২০ লাখ টাকার প্রকল্প গ্রহণ করেছে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়।

ইমপ্রুভমেন্ট অব ইনফ্রাস্ট্রাকচার এ্যান্ড বিউটিফিকেশন ওয়ার্কস ইন বরিশাল সিটি কর্পোরেশন এরিয়া নামে এ প্রকল্পটি জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। আগামী একনেক সভায় প্রকল্পটি অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করবে এলজিইডি মন্ত্রণালয়। অনুমোদন পেলে ২০১৭ সালের জুন মাসের মধ্যে তা বাস্তবায়ন হবে। স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপি জানান, ৫৮ বর্গকিলোমিটার বরিশাল মহানগরীতে বর্তমানে প্রায় ৭ লাখ লোকের বসবাস অথচ একটি ট্রাক স্ট্যান্ড নেই। পৃথক একটি ট্রাকস্ট্যান্ড নির্মাণের দাবি দীর্ঘদিনের। গত কয়েক বছর ধরেই সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে বাজেট প্রদানকালে এ ট্রাক টার্মিনাল নির্মাণসহ পার্ক নির্মাণের কথা জানানো হলেও তা অর্থের অভাবে সম্ভব হয়নি।

এবছর ৫ লাখ কর্মী নেবে মালয়েশিয়া

এ বছরই বাংলাদেশ থেকে ৫ লাখ কর্মী নেবে মালয়েশিয়া। দেশটিতে সরকারীভাবে জিটুজি পদ্ধতিতে কর্মী পাঠানোর জন্য আগ্রহীদের যে তালিকা তৈরি করা হয়েছে তার মধ্য থেকেই বাছাই করে এদের নেয়া হবে। গত বুধবার কুয়ালালামপুরে বাংলাদেশের প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেনের সঙ্গে এক বৈঠকে মালয়েশীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আহমাদ জাহিদ হামিদির বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে। সরকারীভাবে লোক পাঠানো দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর গত ২০১৩ সালে বাংলাদেশ থেকে জিটুজি পদ্ধতিতে কর্মী পাঠানোর প্রক্রিয়া শুরু হলেও মাত্র সাত হাজার কর্মী পাঠাতে পারে বাংলাদেশ। এরপর সমুদ্রপথে মালয়েশিয়া যেতে অবৈধ উপায় বেছে নিতে দেখা যায় বহু অভিভাসন প্রত্যাশীকে।-অর্থনৈতিক রিপোর্টার