২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

এবারের ফিতরা সর্বনিম্ন ৬০ টাকা


স্টাফ রিপোর্টার ॥ এবারে সর্বনিম্ন ফিতরা নির্ধারণ করা হয়েছে ৬০ টাকা। গম বা আটার বাজারমূল্য হিসাব করে বুধবার ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে ফিতরার এ হার নির্ধারণ করা হয়। এর আগে ১৪৩৬ হিজরি সনের সাদাকাতুল ফিতরা হার নির্ধারণের লক্ষ্যে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বায়তুল মুকাররম সভাকক্ষে জাতীয় ফিতরা নির্ধারণ কমিটির এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন ইসলামিক ফাউন্ডেশন দীনী দাওয়াত ও সংস্কৃতি বিভাগের পরিচালক ও জাতীয় ফিতরা নির্ধারণ কমিটির সদস্য সচিব মাওলানা এএমএম সিরাজুল ইসলাম। এছাড়াও সভায় ফিতরা নির্ধারণী কমিটির সদস্য ও বিশেষজ্ঞরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় যে, ইসলামী শরীয়াহ মতে আটা, খেজুর, কিশমিশ, পনির ও যব ইত্যাদি পণ্যগুলোর যে কোন একটি দ্বারা ফিতরা প্রদান করা যায়। আটা দ্বারা ফিতরা আদায় করলে ১ কেজি ৬শ’ ৫০ গ্রাম বা এর বাজারমূল্য ৬০ টাকা আদায় করতে হবে। খেজুর দ্বারা আদায় করলে তিন কেজি ৩শ’ গ্রাম বা এর বাজারমূল্য ১ হাজার ৬৫০ টাকা, কিশমিশ দ্বারা আদায় করলে ৩ কেজি ৩শ’ গ্রাম বা এর বাজারমূল্য এক হাজার ২শ’ টাকা, পনির দ্বারা আদায় করলে ৩ কেজি ৩শ’ গ্রাম বা এর বাজারমূল্য এক হাজার ৬শ’ টাকা এবং যব দ্বারা আদায় করলে ৩ কেজি ৩শ’ গ্রাম বা এর বাজারমূল্য ২০০ (দুইশত) টাকা ফিতরা আদায় করতে হবে। মুসলমানগণ নিজ নিজ সামর্থ্য অনুযায়ী উপরোক্ত পণ্যগুলোর যে কোন একটি পণ্য বা তার বাজারমূল্য দ্বারা সাদাকাতুল ফিতর আদায় করতে পারবেন। উল্লেখ্য, উপরোক্ত পণ্যসমূহের স্থানীয় খুচরা বাজারমূল্যের তারতম্য রয়েছে। তদানুযায়ী স্থানীয় মূল্যে পরিশোধ করলেও ফিতরা আদায় হবে উল্লেখ করা হয়।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে নিজ নিজ সার্মথ্য অনুসারে এসব পণ্যের যে কোন একটি দিয়ে অথবা সমপরিমাণ দাম দিয়ে ফিতরা আদায় করা যাবে। তবে খুচরা বাজারে এসব পণ্যের দামে তারতম্য থাকতে পারে। ইসলাম ধর্মের বিশ্বাস অনুযায়ী, প্রত্যেক সামর্থ্যবান মুসলমানের জন্য ফিতরা আদায় করা ওয়াজিব। নাবালক ছেলেমেয়ের পক্ষ থেকে বাবাকে এই ফিতরা দিতে হয়। আর তা দিতে হয় ঈদুল ফিতরের নামাজের আগেই।

উল্লেখ্য গত বছর সর্বনিম্ন ফিতরা ধরা হয়েছিল জনপ্রতি ৬৫ টাকা তার আগের বছর ছিল ৬৬ টাকা।