২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

মানবসম্পদ উন্নয়নে কার্যকর ভূমিকা রাখছে ব্যাংকগুলো ॥ কর্মশালার তথ্য


স্টাফ রিপোর্টার ॥ দেশের ব্যাংকগুলো মানবসম্পদ উন্নয়নে কার্যকারী ভূমিকা গ্রহণ করছে। ব্যাংকিং খাতে কর্মচারীদের গড় বেতন ও এ্যালাউন্স বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে মানবসম্পদ উন্নয়নে ব্যাংকগুলোর প্রশিক্ষণ প্রদানে অর্থ ব্যয়ের প্রবণতা খুবই নাজুক। বিভিন্ন প্রশিক্ষণে ব্যাংকগুলো মোট খরচের মাত্র ০.০২ শতাংশ ব্যয় করে। ইতোমধ্যে প্রশিক্ষণ প্রদানে ব্যাংকগুলো ই-লার্নিং ব্যবস্থাও চালু করেছে। শতাংশিক হিসাবে ৩৫ শতাংশ ব্যাংকে তা কার্যকর রয়েছে। নারী কর্মচারীদের প্রতি ব্যাংকগুলোর বিশেষ মনোযোগ থাকলেও আনুপাতিক হারে তাদের পরিমাণ খুবই কম। এজিএম বা এভিপিএম পর্যায়ে তা মাত্র ৮.৫৪ শতাংশ। তবে ব্যাংকগুলোতে মাতৃত্বকালীন ছুটি প্রদানের পরিমাণ খুবই ইতিবাচক। এক্ষেত্রে ৯৪ শতাংশ নারীরা পূর্ণ সুবিধা পাচ্ছে। দেশে কার্যরত ২০ টি ব্যাংকের ওপর বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্ট পরিচালিত এক রিভিউ পরিসংখ্যানে এসব তথ্য উঠে আসে। ৫৬টি ব্যাংকের কাছে তথ্য চাওয়া হলেও মাত্র ২০টি ব্যাংক ইতিবাচকভাবে সাড়া দেয়। ওই ২০ ব্যাংকের দেয়া ২০১২, ’১৩ ও ’১৪ সালের তথ্যউপাত্তের ওপর ভিত্তি করে গবেষণাটি পরিচালিত হয়।

সোমবার রাজধানীর মিরপুরের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্ট অডিটরিয়ামে ব্যাংকের মানব সম্পদ ব্যবস্থাপনা শীর্ষক এক কর্মশালায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন কালে প্রতিষ্ঠানটির পক্ষে এসব তথ্য জানানো হয়। গবেষণাধর্মী এ রিভিউ পেপারটি তৈরি করেন এ্যাসোসিয়েট প্রফেসর ও রিভিউ টিম লিডার আশরাফুল আল মামুন, বিআইবিএমের সহকারী প্রফেসর মাসুদুল হক ও একই প্রতিষ্ঠানের প্রভাষক রেকসোনা ইয়াসমিন। সমন্বয়কারী হিসেবে ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের মানবসম্পদ উন্নয়ন-১ এর যুগ্ম পরিচালক রফিকুল ইসলাম ও ঢাকা ব্যাংক লিমিটেডের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট এ্যান্ড হেড অব ট্রেনিং সালাহুদ দিন আহমেদ।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: