১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

আয়কর আইন সংশোধনে ১৫ দফা প্রস্তাব


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ চলতি ২০১৫-১৬ অর্থবছরের উত্থাপিত বাজেটে অর্থ আইনের ওপর অর্থ বিল ও আয়কর আইনে কিছু সংযোজন ও সংশোধন করার লক্ষ্যে ১৫ দফা প্রস্তাব উপস্থাপন করেছে ঢাকা ট্যাক্সেস বার এ্যাসোসিয়েশন। সোমবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলনে এসব প্রস্তাব উপস্থাপন করেন সংগঠনের সভাপতি এ্যাডভোকেট মাজম আলী খান। তিনি বলেন, ‘প্রস্তাবিত অর্থবছরে করমুক্ত আয়ের সীমা ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং মহিলাদের জন্য ২ লাখ ৭৫ হাজার টাকা প্রস্তাব করা হয়েছে, আমরা এই সীমা ৩ লাখে বৃদ্ধির প্রস্তাব করছি।’ সর্বজনীন স্বনির্ধারণী পদ্ধতি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘৮২ বিধি ধারায় মামলা নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে সুনির্দিষ্ট নীতিমালার অভাব রয়েছে। কর কর্মকর্তার অপ্রত্যাশিত হয়রানির কারণে করদাতারা ৮২ বিধি ধারায় রিটার্ন দাখিল পূর্বক আয়কর পরিশোধ করতে নিরুৎসাহিত হচ্ছে।’ আয়কর অঙ্গনে অবৈধ প্রতিনিধিত্ব ও দালালদের দৌরাত্ম্য রয়েছে দাবি করে তিনি আরও বলেন, ‘অবৈধ ও বেআইনী প্রতিনিধিত্বকারী ও দালালদের দৌরাত্ম্যের কারণে বিপুলসংখ্যক মামলা আপিল, ট্রাইব্যুনাল এবং হাইকোর্ট পর্যন্ত দীর্ঘদিন ঝুলে আছে, যার ফলে সরকার বিশাল অংকের রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।’ প্রবাসী বাঙালীরা অজ্ঞতার কারণে শত শত কোটি টাকা হু-ির মাধ্যমে প্রেরণ করেন, যা আয়কর আইন অনুসারে রিটার্নে প্রদর্শন করতে পারে না। এ অর্থ সহজ শর্তে ফ্ল্যাট, শিল্প কারখানায় বিনিয়োগের সুযোগ থাকলে সরকার অনেক রাজস্ব পাবে বলে মনে করেন তিনি।