১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৪ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স দেখাতে হবে


সংসদ রিপোর্টার ॥ প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে সরকারী দলের সংসদ সদস্যরা প্রস্তাবিত বাজেটকে ‘সাহসী বাজেট’ আখ্যায়িত করে বলেছেন, সবদিক থেকে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। দেশের জনগণ যে স্বপ্ন দেখেন, তা বাস্তবায়ন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাজেটের কিছু অংশের সমালোচনা করে বিরোধী দলের সংসদ সদস্যরা বলেন, দুর্নীতির বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স’ দেখাতে না পারলে প্রস্তাবিত বাজেটের লক্ষ্য পূরণ হবে না। তবে সরকার ও বিরোধী দলের সদস্যরা অভীন্ন কণ্ঠে শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতে কম বরাদ্দের সমালোচনা করেন।

সোমবার জাতীয় সংসদে স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তারা এসব কথা বলেন। বাজেটের ওপর আলোচনায় অংশ নেন সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন, স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, নুরুজ্জামান আহমেদ, ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল, মেজর জেনারেল (অব) এটিএম আবদুল ওয়াহহাব, পংকজ দেবনাথ, নাছিমা ফেরদৌসী, বেগম লুৎফুন্নেসা, আবদুল মজিদ ম-ল, এ্যাডভোকেট উম্মে কুলসুম স্মৃতি, ছবি বিশ্বাস, হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া, ফজিলাতুন্নেসা ইন্দিরা এবং জাতীয় পার্টির এম এ হান্নান, মোহাম্মদ সেলিম উদ্দিন, সালাউদ্দিন আহমেদ মুক্তি ও বেগম রওশন আরা মান্নান।

এ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন প্রস্তাবিত বাজেটকে ‘সাহসী বাজেট’ হিসেবে আখ্যায়িত করে বলেন, একমাত্র আওয়ামী লীগই পারে জনগণের ভাগ্যোন্নয়নে এমন বিশাল বাজেট দেয়ার সাহস দেখাতে এবং তা বাস্তবায়ন করতে। তিনি বলেন, দেশকে ধ্বংস করতে অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে। কিন্তু বিএনপি-জামায়াতের দিন এখন শেষ, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদ দমন ও আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সরকার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।

তিনি বলেন, একটি মহল আছে যারা শুধু সমালোচনা বুঝে। তারা মনে করেন সবকিছুতে সমালোচনা করলেই তাদের নামের পাশে বুদ্ধিজীবী ও সুশীলের তকমা লাগবে। আমরা সমৃদ্ধির সোপানে হাঁটলেও তাদের তা চোখে পড়ে না। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু আমাদের স্বাধীনতা ও বিজয়ের আনন্দ দিয়ে গেছেন, আর তাঁর কন্যা শেখ হাসিনা স্থলসীমান্ত চুক্তির মাধ্যমে ছিটমহলবাসীকে স্বাধীনতার সুখ ও আনন্দ দিয়েছেন।

জাতীয় পার্টির এম এ হান্নান সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ৫ জানুয়ারির নির্বাচন বানচাল করতে বিএনপি-জামায়াত জোট যে ভয়াল তা-ব সৃষ্টি করেছিল, তার মধ্যে সফলভাবে নির্বাচন করা একটি সাহসী সিদ্ধান্ত। এ জন্য অবশ্যই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ধন্যবাদ পাওয়ার যোগ্য।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: