২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

রোজার সুস্থতা ব্যায়ামে


রোজার মাস সিয়াম সাধনার মাস। দীর্ঘ একমাস পর গুরুত্বপূর্ণ রমজান মাস মুসলমানদের নিকট উপস্থিত হয়। এই মাসে ধর্মপ্রাণ মুসলমান সুবেহ সাদিক থেকে সূর্য অস্ত যাওয়া পর্যন্ত পানাহার না করে আল্লাহর দিদার লাভে সকল মুসলমান ইবাদাতে মশগুল হন। ধর্মপ্রাণ মুসলমান সমাজ রোজার মাধ্যমে আত্মিক এবং দৈহিক উভয় ক্ষেত্রে বিশেষ শিক্ষা গ্রহণ করে থাকে। পবিত্র এই মাসে অন্যান্য মাসের তুলনায় দিনযাপন কিছুটা ভিন্ন রকম। যার ফলে রোজার মাসে রোজাদার সকলের সুস্বাস্থ্যতায় বিশেষ যতœশীল হতে হয়। এ ক্ষেত্রে সুস্থতায় ব্যায়াম বেশ কার্যকর ইয়োগা, যোগাসন এবং ফ্রিহ্যান্ড ব্যায়ামের মাধ্যমে স্বাস্থ্যের সুরক্ষা করা সম্ভব হবে। তবে একটু অবাক লাগবে কিভাবে ফিহ্যান্ড, যোগাসন বা ইয়োগা করা যাবে। ব্যায়াম এমন একটি কৌশল যা কোন এক স্থানে করা সম্ভব। এ ক্ষেত্রে ব্যায়ামের জন্য অনুকূল স্থান ও সরঞ্জাম প্রয়োজন। পবিত্র মাহে রমজান মাসে স্বাস্থ্যকে সতেজ ও সুস্থ রাখতে স্ক্রিপিং বেছে নেয়া যায়। এ ব্যায়ামটির জন্য ইয়োগা মেট, সাউন্ড সিস্টেম ও কিছু সরঞ্জাম হলে বেশ উত্তম। ব্যায়ামের যত কৌশল রয়েছে সেগুলোর মধ্যে স্ক্রিপিং ব্যায়াম সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। একটি স্ক্রিপিং বা তার অথবা মোটা দড়ির ওপর আস্তে আস্তে লাফাতে থাকুন। প্রথমে কৌশল আয়ত্ত করতে কিছুটা বেগ পেতে হয়। তবে ধীরে ধীরে আয়ত্তে আসবে। মনে রাখতে হবে, প্রথমে লাফাতে কিছুটা কষ্ট হবে। এ জন্য টানা ত্রিশ সেকেন্ডের বেশি লাফানো উচিত নয়। এ ভাবে ত্রিশ সেকেন্ড ব্যায়াম করে কিছুক্ষণ বিশ্রাম নিতে হবে। অবশ্য মনে রাখতে হবে, যেহেতু রজমান মাস, তাই স্ক্রিপিং ব্যায়ামসহ অন্যান্য ব্যায়াম ইফতারের পরবর্তী সুবিধাজনক সময় অথবা তারাবীহ্ নামাজের পরে, ঘুমানোর পূর্বে করাই ভাল। এ সময় অন্যান্য মাসের তুলনায় কম সময় ব্যায়াম করতে হবে। স্ক্রিপিং ব্যায়ামের মাধ্যমে গ্যাস্টিকের সমস্যা, পেটের সমস্যা, হার্টের সমস্যা, শারীরিক অক্ষমতা, অতিরিক্ত চর্বি, ভয় রোধ, দেহের সৌন্দর্য এবং মানসিক শক্তি বৃদ্ধিতে বিশেষভাবে সহায়তা করে। স্ক্রিপিং বা অন্যান্য ব্যায়ামের উপকারিতা পেতে ব্যায়াম করার পরে পানি পান করুন এবং ইফতারের পরেও ব্যয়াম করার পূর্বে ধূমপান পরিহার করুন।