২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ভারতে মোদীর আহ্বানে যোগব্যায়ামে হাজারো মানুষ


অনলাইন ডেস্ক ॥ আন্তর্জাতিক ইয়োগা দিবস উপলক্ষ্যে রোববার সকালের এই গণ-জমায়েতকে কেন্দ্র করে রাজধানী দিল্লির নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে । কয়েক হাজার পুলিশ এবং আধাসামরিক বাহিনীর সদস্যকে নিয়োজিত রাখা হয়েছে। শহরের কিংস এভিনিউর রাজপথে প্রধান অনুষ্ঠান স্থলে রং বেরং এর কয়েক হাজার শতরঞ্জি বিছিয়ে দেয়া হয়। আর সেখানে ইয়োগা অনুশীলনে যোগ দিয়ে অংশগ্রহণকারীদের বিস্মিত করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী । যোগব্যায়ামের একজন অনুরাগী মিস্টার মোদী নিজেই জানিয়েছেন, তিনি প্রতিদিনই প্রাচীন ভারতীয় এই শিল্পের চর্চা করে থাকেন। ২১শে জুনকে আন্তর্জাতিক ইয়োগা দিবস হিসেবে ঘোষণার জন্য জাতিসংঘে আহবান জানিয়েছিলেন মিস্টার মোদী নিজেই। কর্তৃপক্ষ বলছে, পদস্থ কর্মকর্তা, সেনা সদস্য এবং শিক্ষার্থীসহ ৩৫ হাজারের বেশি মানুষ রাজপথে’এ ৩৫ মিনিট ব্যাপী এক যোগব্যায়াম সেশনে অংশ নিয়েছেন। কোনও একক ভেন্যুতে সবচেয়ে দীর্ঘসময় ধরে চলা যোগব্যায়াম ক্লাসের নতুন গিনেস বিশ্ব রেকর্ড গড়াই এই আয়োজনের উদ্দেশ্য। ভারতের অন্যান্য শহরে যোগব্যায়ামের এ ধরনের বিভিন্ন আয়োজনে আরও লাখ লাখ লোক অংশ নিতে যাচ্ছেন বলে ধারনা করা হচ্ছে। দিবসটি বিশ্বের অন্যান্য স্থানেও উদযাপিত হচ্ছে। জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুনের সাথে নিউ ইয়র্কে দিবসটি উদযাপনে অংশ নিচ্ছেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ । টাইমস স্কয়ারে ৩০ হাজার লোক যোগব্যায়ামে অংশগ্রহণ করতে পারেন বলে আশা করা হচ্ছে। তবে এই দিবসটিকে ঘিরে একধরনের বিতর্কও দেখা দিয়েছে। কয়েকটি মুসলিম সংগঠন বলছে, যোগব্যায়াম মূলত একটি হিন্দু ধর্মীয় আচারের অংশ এবং তা ইসলামের পরিপন্থী। অনেকেই বিষয়টিকে দেখছেন, মিস্টার মোদীর হিন্দু জাতীয়তাবাদের সরকার প্রাচীন ভারতীয় রীতি-নীতি প্রচারের এজেন্ডা হিসেবে। তবে কর্তৃপক্ষ বলছে, যোগব্যায়ামে অংশগ্রহণ বাধ্যতামূলক নয়। তবে মুসলিমরা যোগব্যায়ামের বিরোধী এমন খবরকে ভিত্তিহীন বলে মনে করছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ।

সূত্র : বিবিসি