১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

লাদেনের মৃত্যু সনদ দিতে অস্বীকৃতি যুক্তরাষ্ট্রের


যুক্তরাষ্ট্রের নেভি সিলের অভিযানে নিহত আল-কায়েদার প্রধান নেতা ওসামা বিন লাদেনের মৃত্যুর সনদ চেয়ে সৌদি আরবে মার্কিন দূতাবাসে চিঠি লিখেছিলেন তার ছেলে আবদুল্লাহ বিন-লাদেন। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র লাদেনের মৃত্যুর সনদ দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিল। জুলিয়ান এ্যাসাঞ্জের বিতর্কিত ওয়েবসাইট উইকিলিকসের বৃহস্পতিবার ফাঁস করা গোপন নথিতে এসব কথা জানা গেছে। খবর উইকিলিকস ও ওয়াশিংটন পোস্টের।

রিয়াদে অবস্থিত মার্কিন দূতাবাসের কাছে বিন লাদেনের ছেলের লেখা চিঠিসহ প্রায় ৭০ হাজার নথি ‘দ্য সৌদি ক্যাবলস’ নামে উইকিলিকস প্রকাশ করেছে। সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের ৫০ লাখেরও বেশি নথি আগামী সপ্তাহগুলোতে প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছে উইকিলিকস। রিয়াদে মার্কিন কনস্যুলেট জেনারেল গ্লেন কিসার ২০১১ সালের ৯ সেপ্টেম্বর আব্দুল্লাহকে ওই চিঠির উত্তর দিয়েছিলেন। তিনি চিঠিতে লিখেছিলেন, আমি আপনার পিতা ওসামা বিন লাদের মৃত্যু সনদের জন্য আপনার অনুরোধসহ চিঠি পেয়েছি। পাকিস্তানে লাদেনের গোপন আস্তানায় তাকে মার্কিন বাহিনীর হত্যার চার মাস পর এই চিঠি পাঠানো হয়। তখন মার্কিন কর্মকর্তারা জানিয়েছিলেন লাদেনের মরদেহ পরে সমুদ্রে সমাহিত করা হয়। বিন লাদেনের মৃতদেহের অথবা তার সমাহিত করার কোন ছবি থাকলে তা প্রকাশ করার অনুরোধও উপেক্ষা করা হয়। এই ধরনের অভিযুক্ত ব্যক্তিদের ছবি তোলা হলে তা ধ্বংস করে ফেলা হয়ে থাকে।

মুম্বাইয়ে বিষাক্ত মদ পানে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭৪

ভারতের পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর মুম্বাইয়ের উপকণ্ঠে একটি গ্রামে মদপানের পর বিষক্রিয়ায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭৪ জনে দাঁড়িয়েছে। মুম্বাই পুলিশ এ খবর জানিয়েছে। খবর ওয়েবসাইটের।

পুলিশের মুখপাত্র ধনঞ্জয় কুলকার্নি বলেছেন, মৃতের সংখ্যা এখন ৭৪। অসুস্থ হয়ে আরও ২৮ জন বিভিন্ন হাসপাতালে আছেন। এদের মধ্যে অন্তত ১২ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। বুধবার রাতে মালাদ ওয়েস্ট এলাকার রাথোড়ি গ্রামের একটি বারে সস্তা দেশি মদ পান করেন একদল নিম্ন আয়ের মানুষ। তাদের মধ্যে শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত বিষক্রিয়ায় অসুস্থ হয়ে ২০ জনের মৃত্যু হয়। এর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই আরও ৩৩ জনের মৃত্যু হয়। এছাড়া দিনভর অনেকেই বিষক্রিয়ার উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

মুম্বাই পুলিশের ডেপুটি কমিশনার কুলকার্নি আরও বলেছেন, এ ঘটনায় মালবানি থানার জ্যেষ্ঠ পুলিশ পরিদর্শক প্রকাশ এস পাতিল ও চার কর্মকর্তাসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর আট সদস্যকে বরখাস্ত করা হয়েছে।