২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড সিরিজ ফয়সালার ম্যাচ আজ


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড সিরিজ এতটা আকর্ষণ ছড়াবে অনেকেই তা ভাবেননি। ধারণা করা হয়েছিল বিশ্বকাপের রানার্সআপ কিউইদের কাছে পাত্তা পাবে না গ্রুপপর্ব থেকে বিদায় নেয়া ইংলিশরা, অন্তত ওয়ানডেতে। কিন্তু ভালই দেখাচ্ছে বদলে যাওয়া ইংল্যান্ড। চতুর্থ ওয়ানডে জিতে পিছিয়ে পড়া সিরিজে ২-২এ সমতা ফিরিয়েছে ইয়ন মরগানের দল। পঞ্চম ও শেষ ম্যাচটা হয়ে উঠেছে ফয়সালার লড়াই। চেস্টার-লি-স্ট্রিটে যেটি অনুষ্ঠিত হবে আজ বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে পাঁচটায়। সত্যি বদলে যাওয়া ইংল্যান্ড ‘বনাম’ দুর্ধর্ষ নিউজিল্যান্ডÑ লড়াইটা জমে উঠেছে দারুণভাবে।

প্রথম ওয়ানডে জিতে সিরিজে এগিয়ে গিয়েছিল স্বাগতিকরা। এরপর টানা দুই জয়ে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ায় অতিথি কিউইরা। চতুর্থ ম্যাচে দুর্দান্ত জয়ে সমতায় ফেরে ইংলিশরা। প্রথম বাদে প্রতিটি ম্যাচই ছিল আকর্ষণীয়। ব্যাটসম্যানদের দাপটে চিত্তাকর্ষক ক্রিকেটই দেখেছে বিশ্ব। প্রথম ওয়ানডেতে ইংল্যান্ডের ৪০৮ রানের পাহাড় টপকাতে গিয়ে ১৯৮ রানে অলআউট হয় সফরকারীরা। ২১০ রানের বিশাল হারে শুরুটা বাজে হয় ব্রেন্ডন ম্যাককুলামদের। টানা দুই জয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর পথে দুরন্ত নৈপুণ্য প্রদর্শন করে নিউজিল্যান্ড। দুটি ম্যাচই ছিল বেশ প্রতিদ্বন্দিতাপূর্ণ।

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৩৯৮ রানের বিশাল স্কোর গড়ে ম্যাককুলাম বাহিনী। জবাবে ১৩ রানে হারলেও ইংল্যান্ড থামে ৩৬৫ রানে। তৃতীয় ম্যাচে ৪৫.২ ওভারে ৩০২ রানে অলআউট হয় স্বাগতিকরা। ম্যাককুলামরা তা টপকে যায় ১ ওভার ও ৩ উইকেট হাতে রেখে। চতুর্থ ওয়ানডে ছিল দু’দলের ব্যাটিং উদ্ভাসে ভাস্বর। ওভারে কোন সেঞ্চুরি ছাড়াই ৭ উইকেটে ৩৪৯ রানের বড় সংগ্রহ গড়ে নিউজিল্যান্ড। জো রুট ও ইয়ন মরগানের জোড়া সেঞ্চুরিতে ভর করে ওই সংগ্রহ ডাল-ভাত করে নেয় ইংলিশরা, টপকে যায় ৬ ওভার হাতে রেখে, ৭ উইকেটের বড় জয়ে ফেরায় সমতা। বিশ্বকাপে বাংলাদেশের কাছে হেরে গ্রুপপর্ব থেকে বিদায় নেয় ইংল্যান্ড। ঢেলে সাজানো হয় দল। নেয়া হয় এক ঝাঁক নবীন ক্রিকেটার। সেই দলটিই দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে। ম্যাচটা তাই সহজ হবে না বলেই মনে করছেন ম্যাককুলাম। তবে আত্মবিশ্বাসী কিউই অধিনায়ক, ‘সিরিজের এ পর্যায়ে এটা পরিষ্কার, বদলে যাওয়া ইংল্যান্ড আসলেই আগ্রাসী। মনে ভীষণ জেদ নিয়ে শুরু করেছে ওরা। যার ফলও পাচ্ছে, প্রথম টেস্টের পর প্রথম ওয়ানডেতেও দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলেছে তারুণ্যনির্ভর দলটি। আগের ওয়ানডেতে আমরা তাদের সাড়ে তিন শ’ রানেও বেঁধে রাখতে পারিনি।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: