২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বাজেটে ন্যূনতম করের পরিমাণ কমানোর দাবি আইক্যাবের


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ২০১৫-১৬ সালের প্রস্তাবিত বাজেটে ন্যূনতম করদাতার করের পরিমাণ কমানোসহ ১১টি পরিবর্তনের সুপারিশ করেছে ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড এ্যাকাউন্ট্যান্টস্ অব বাংলাদেশ (আইক্যাব)। বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত বাজেটপরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এই সুপারিশনামা তুলে ধরেন আইক্যাব সভাপতি মসিহ মালিক চৌধুরী।

তিনি বলেন, আর্থ-সামাজিক বাস্তবতায় প্রবৃদ্ধির হার ৭ শতাংশ হওয়া দরকার। মধ্যম আয়ের অর্থনীতিতে পৌঁছুতে প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ৮ শতাংশ হতে হবে। মধ্য আয়ের অর্থনীতিতে পৌঁছানোর রাজনৈতিক প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে ২০১৯-২০ অর্থবছরে এই প্রবৃদ্ধি ৮ শতাংশ থেকে সাড়ে ৮ শতাংশ অর্জন করতে হবে। মসিহ মালিক চৌধুরী বলেন, বেসরকারী খাতে দেশজ আয়ের মাত্র ২ শতাংশ বিনিয়োগ বৃদ্ধি করলেই ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জিত হবে না। এর জন্য জবাবদিহিতা, স্বচ্ছতা ও সুশাসন নিশ্চিত করা জরুরী।

আইক্যাবের একটি প্রতিনিধি দল পরে সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাত করে তাদের সুপারিশগুলো পেশ করেছেন। আইক্যাবের সুপারিশগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- ২০১৪-১৫ এবং ২০১৫-১৬ অর্থবছরের জন্য ফাইন্যান্সিয়াল বিল তৈরি, এ্যাকাউন্ট্যান্ট ও প্রফেশনাল সার্ভিসের উপর প্রস্তাবিত কর ও উৎসে কর ১০ শতাংশে ফিরিয়ে আনা, এনবিআরের লোকবল বৃদ্ধি করা এবং জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা, ন্যূনতম করদাতাদের করের পরিমাণ কমানো ইত্যাদি।

প্রসঙ্গত, প্রস্তাবিত বাজেটে ন্যূনতম করদাতাদের কর ৩ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ৪ হাজার টাকা করার