২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

আইসিবির ঋণ মওকুফ বাজারে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ মার্জিন ঋণের মওকুফে নেয়া আইসিবির উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন পুঁজিবাজার বিশ্লেষক ও অর্থনীতিবিদরা। তারা মনে করছেন, এ উদ্যোগ সফল হলে পুঁজিবাজারে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে। এতে বিনিয়োগকারীর পাশাপাশি আইসিবিও নিজেও লাভবান হবে। বর্তমান বাজার পরিস্থিতি বিবেচনায় দ্রুততম সময়ে প্রক্রিয়াটি শেষ করার পরামর্শ দিয়েছেন তারা।

উল্লেখ, গত মাসে রাষ্ট্রীয় মালিকানার বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠান গ্রাহকদের মার্জিন ঋণের (শেয়ার কেনার জন্য মার্চেন্ট ব্যাংক বা ব্রোকার হাউজ থেকে নেয়া ঋণ) সুদ মওকুফের নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়। প্রস্তাব অনুসারে, ২০১১ সালের ১ জুন থেকে ২০১৫ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত সময়ের মার্জিন ঋণের সুদের ৭৫ শতাংশ মওকুফ করার কথা। মওকুফকৃত সুদের পরিমাণ দাঁড়াতে পারে ৯০ কোটি টাকা। প্রতিষ্ঠানটির সাড়ে ৭ হাজার গ্রাহক পাবেন এ সুবিধা।

এ বিষয়ে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অর্থ উপদেষ্টা ও বিএসইসির প্রাক্তন চেয়ারম্যান মির্জা আজিজুল ইসলাম বলেন, বিনিয়োগকারীদের মার্জিন ঋণের সুদ মওকুফের বিষয়টি একটি ভাল উদ্যোগ। এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হলে বাজারে তারল্য বাড়বে। কারণ বিপুল লোকসান বা ঋণাত্মক ইক্যুইটির কারণে অনেক বিনিয়োগকারী বাজারে আসছেন না। গত চার বছরে অনেক সুদ পাওনা হওয়ায় তাদের পোর্টফোলিওটিকে আর লাভজনক করার সুযোগ নেই। সুদ মওকুফ হলে এরা আবার বাজারে সক্রিয় হতে পারবেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ও পুঁজিবাজার বিশেষজ্ঞ আবু আহমেদ বলেন, আইসিবির এ উদ্যোগ অবশ্যই প্রশংসনীয়। এ উদ্যোগ বাস্তবায়িত হলে কিছুটা হলেও ইতিবাচক প্রভাব পড়বে বাজারে।

অর্থনীতিবিদ ও পুঁজিবাজার বিশেষজ্ঞ হেলাল উদ্দিন বলেন, আইসিবির পরিচালনার এ উদ্যোগ পুঁজিবাজারের জন্য ভালো খবর। তবে লাভ, ক্ষতির দুটি দিকই আছে। তিনি বলেন, সুদ মওকুফের পাশাপাশি বিনিয়োগকারীদের বাজারে সক্রিয় হতে উদ্বুদ্ধ করতে হবে।