২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বিএফইউজে সভাপতিকে হত্যা হুমকির ঘটনায় নিন্দা


অনলাইন ডেস্ক ॥ বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল সহ দেশের বিশিষ্ট কয়েকজন সাংবাদিককে হত্যার হুমকির ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে সাংবাদিক সমাজ।

বুধবার (১৭ জুন) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে সাংবাদিক সমাজ এ নিন্দা জান‍ান।

বিবৃতিতে বলা হয়, মনজুরুল আহসান বুলবুল একজন পেশাদার সাংবাদিক। দেশে সাংবাদিকদের নেতৃত্ব দেওয়ার পাশাপাশি তিনি আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও স্বাধীন সাংবাদিকতা ও মত প্রকাশের স্বাধীনতার একজন সোচ্চার সৈনিক। গত তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে দেশের মুদ্রণ ও ইলেকট্রনিক মাধ্যমে সর্বোচ্চ পেশাদারিত্বের মাধ্যমে তিনি আমাদের সাংবাদিকতাকে সমৃদ্ধ করেছেন।

এতে বলা হয়, একজন অসাম্প্রদায়িক, প্রগতিশীল এবং মুক্তবুদ্ধির মেধাবী সাংবাদিক হিসেবে তার অবস্থান স‍ুস্পষ্ঠ। আমাদের মহান মুক্তিযু্দ্ধ এবং দেশের গণতান্ত্রিক অভিযাত্রায় তার অবস্থান আপোষহীন। তাকে হত্যার হুমকি দেওয়ার মধ্যদিয়ে দৃশ্যত: মুক্তিযুদ্ধ, অসাম্প্রদায়িকতা এবং গণমাধ্যমের স্বাধীনতাকেই হত্যার হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে আমারা মনে করি। এই হুমকি স্বাধীন সাংবাদিকতার প্রতিও চ্যালেঞ্জ।

বিবৃতিতে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ বলেন, আমরা বিস্ময়ের সঙ্গে লক্ষ্য করেছি একই গোষ্ঠীর পক্ষ থেকে দেশের প্রবীণ সাংবাদিক আবেদ খান, শ্যামল দত্ত, মুন্নী সাহা, শাহীন রেজা নূর, নবনীতা চৌধুরী এবং অঞ্জন রায়কেও একই ধরনের হুমকি দেওয়া হয়েছে।

সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকসহ দেশের বিশিষ্ট নাগরিকদের হত্যার হুমকিতেও নিন্দা জানিয়েছেন। তারা বলেন এই হুমকি শুধু মুক্ত বুদ্ধি বা প্রগতিশীল চেতনার বিরুদ্ধেই নয় মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বিরুদ্ধেও ।

তারা অবিলম্বে হুমকিদাতাদের চিহ্নিত করে তাদের আইনের আওতায় এনে শাস্তি নিশ্চিত করার পাশাপাশি দেশের বিশিষ্ট নাগরিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে রাষ্ট্রের কাছে দাবি জানান।

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন- বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি ড.উৎপল কুমার সরকার ও মহাসচিব আবদুল জলিল ভূঁইয়া, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আলতাফ মাহমুদ ও সাধারণ সম্পাদক কুদ্দুস আফ্রাদসহ চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, বগুড়া, দিনাজপুর, যশোর, কক্সবাজার, ময়মনসিংহ, নারায়ণগঞ্জ সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা।