১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

আজই সিরিজ নিশ্চিত করতে চায় কিউইরা


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ‘ইংল্যান্ডকে হারানোর সামর্থ্য আমাদের রয়েছে, যদিও শেষ ম্যাচে বেশ বেগ পেতে হয়েছে। ছেলেরা আত্মবিশ্বাসী, নটিংহামেই সিরিজ পকেটে পুড়তে চাই।’ অতিথি অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককুলামের ছোট্ট বক্তব্যে অনেক কিছু ফুটে ওঠে। ফুটে ওঠে সফরে কিউইদের ‘ড্যাশিং’ ক্রিকেটের চিত্রটাও। প্রথমে পিছিয়ে পড়ে দুর্দান্ত জয়ে টেস্ট সিরিজ ১-১এ সমতায় শেষ করা, এরপর প্রথম ওয়ানডেতে লজ্জাজনক হার সত্ত্বেও টানা দুই জয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ২-১এ এগিয়ে বিশ্বকাপের ফাইনালিস্টরা। আজ চতুর্থ ওয়ানডে জিতলে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ পকেটে পুড়তে চায় ম্যাককুলামবাহিনী। বিশ্বকাপের পর পূর্ণাঙ্গ দ্বিপক্ষীয় সিরিজে কিউইদের নিয়ে তৈরি হয় বাড়তি আগ্রহ। বিপরীতে পিছিয়ে ছিল না মাঠ ও মাঠের বাইরে বদলে যাওয়া নতুন ইংল্যান্ড। ঘরের মটিতে আগ্রাসী ক্রিকেট নিয়ে হাজির হয়েছে ইয়ন মরগানের দল। বিষয়টা মেনে নিয়ে ম্যাককুলাম আরও যোগ করেন, ‘সিরিজের এ পর্যায়ে এটা পরিষ্কার যে এই ইংল্যান্ড আসলেই আগ্রাসী। মনে দারুণ জেদ নিয়ে শুরু করেছে তারা। যার ফলও পেয়েছে, প্রথম টেস্টের পর প্রথম ওয়ানডেতেও দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলেছে তারুণ্য নির্ভর দলটি। সামান্য ভুলত্রুটি বাদ দিলে আমরাও ভাল খেলছি। বোলারদের পাশাপাশি ব্যাট হাতে রান পাচ্ছে টেইলর, উইলিয়মাসন।’ ৪০৮ রানের বিশাল পুঁজি গড়ে প্রথম ওয়ানডেতে ২১০ রানের বড় জয় তুলে নিয়েছিল স্বাগতিকরা। কিন্তু মরগান বাহিনী সে ধারা অব্যাহত রাখতে পারেনি। তবে বাড়তি আগ্রহ থাকা সিরিজের শেষ দুটি ওয়ানডে কিন্তু আসলেই দারুণ আকর্ষণ ছড়িয়েছে। কিংস্টন ওভালে টেইলরের সেঞ্চুরির ওপর ভর করে ৩৯৮ রানের বড় স্কোর গড়ে কিউইরা। জবাবে ন্যূনতম সেঞ্চুরি ছাড়াই ইংল্যান্ড ৪৬ ওভারে ৯ উইকেটে ৩৬৫ রান করে বসে! বৃষ্টিবিঘিœত রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে ডার্কওয়ার্থ-লুইস পদ্ধতিতে ১৩ রানের নাটকীয় জয়ে সমতা ফেরায় নিউজিল্যান্ড। রোজ বোলের তৃতীয় হাইস্কোরিং ওয়ানডেটিও ছিল দারুণ আকর্ষণীয়। ৪৫.২ ওভারে অলআউট হলেও ৩০২ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে স্বাগতিক ইংলিশরা। জবাবে ৭ উইকেট হারিয়ে ১ ওভার বাকি থাকতে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ব্রেন্ডন ম্যাককুলামের দল। ১১৮ রানের অনবদ্য ইনিংস উপহার দিয়ে ম্যাচসেরা প্রতিভাবান উইলিয়ামসন। টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরি তুলে নেন টেইলর। সিরিজের তিন ম্যাচে সাবেক কিউই অধিনায়কের স্কোরÑ ৫৭, ১১৯* ও ১১০! নিউজিল্যান্ডের হয়ে টেইলরের চেয়ে বেশি সেঞ্চুরি আছে কেবল সাবেক তারকা নাথান এ্যাস্টলের (১৬)। তার চেয়ে বড় অফফর্ম কাটিয়ে দারুণভাবে ছন্দে ফেরা। তবে দুর্ভাগ্য ইনজুরির জন্য শেষ দুই ম্যাচে সফরকারীরা কিউইরা পাচ্ছে না সেরা পেসার ট্রেন্ট বোল্টকে। অন্যদিকে এক ঝাঁক তরুণ ক্রিকেটর নিয়ে গড়া ইংল্যান্ড এবার আগ্রাসী ক্রিকেট খেলার টার্গেট করেই নেমেছে। অনেকার্থে সফল তারা। সামনে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন ইয়ন মরগান। তিন ম্যাচেই হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেয়া অধিনায়ক ৭০ গড়ে করেছেন ২০৯ রান। একটি করে সেঞ্চুরি পেয়েছেন জস বাটলার আর জো রুট।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: