২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৪ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

তাসকিনের প্রত্যাশা জয়...


তাসকিনের প্রত্যাশা জয়...

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে সব ম্যাচ জিতে ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের ৮ নম্বরে উঠেছে বাংলাদেশ। এবার যদি কোনভাবে ভারতকে একটি ম্যাচে হারাতে পারে বাংলাদেশ, তাহলে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে পেছনে ফেরে র‌্যাঙ্কিংয়ের ৭ নম্বরে উঠে যাবে। এমন অবস্থায় দলকে জেতাতে চান পেসার তাসকিন আহমেদ।

গত বছর জুনেই ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ওয়ানডে ক্রিকেট খেলা শুরু করা তাসকিনকে যখন জিজ্ঞেস করা হলো, বিশেষ কোন লক্ষ্য আছে? তাসকিন জানালেন, ‘বিশেষ কোন লক্ষ্য বলতে, সুযোগ পেলে, আল্লাহর রহমত থাকলে চেষ্টা করব দারুণ একটা স্পেল করে দলকে জেতাতে।’ ফতুল্লা টেস্ট শেষ হয়েছে রবিবার। বিশ্রাম নেননি ক্রিকেটাররা। সোমবারই ওয়ানডে সিরিজের জন্য অনুশীলনে নেমে পড়েছেন। মঙ্গলবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত অনুশীলন করেছেন মাশরাফিবাহিনী। অনুশীলন শেষে তাসকিন জানালেন, ‘ভারতের বিপক্ষে আগের স্মৃতি অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করবে। তবে মাঠের খেলা একেবারে নতুন করে শুরু করতে হবে। যা চলে গেছে তা চলেই গেছে। তা স্মৃতি হিসেবে থাকবে। এখন নতুন করে মাঠে ভাল খেলতে হবে।’ আগের ভারতীয় দল শক্তিশালী ছিল না? তাসকিন বললেন, ‘তা ঠিক। ভারত বিশ্বের সেরা দলগুলোর একটি। বিশেষ করে উপমহাদেশে তাদের ব্যাটিং দুর্দান্ত। এটা মনে রাখতে হবে, তাদের সামনে আমাদের পেসারদের ভাল বোলিং করতে হবে। ফলাফল পেতে চাইলে ভাল বোলিংয়ের বিকল্প নেই।’ তাসকিন আগের চেয়ে অনেক বোলিং করছেন বলেও জানালেন, ‘সবকিছুর জন্যই অনুশীলন চলছে। অনুশীলনে অনেক পরিশ্রম করছি। আগের তুলনায় এখন আমি অনেক ফিট। আশা করি সামনে সব ফরম্যাটেই আমি খেলতে পারব।’ সেই বেশি বোলিং করাটা কী রকম? তাসকিন বললেন, ‘দুই সপ্তাহ আগেও সপ্তাহে ১২০ বল করতাম। এখন অনেক করছি। মানে এখন ১৬০ বল করছি। জিমও বেশি করব।’ বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে ভাল না করতে পারার প্রসঙ্গ উঠতেই তাসকিন জানিয়ে দিলেন, ‘এবার হয় তো পারব। আমাদের দল আগের চেয়ে শক্তিশালী। সবাই ভাল খেলছে। আমরা যদি আগের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারি, আশা করি খুব ভাল কিছু হবে।’

উইকেট নিয়েও কথা বলেছেন তাসকিন, ‘পাকিস্তান সিরিজে স্পোর্টিং উইকেট ছিল। এখন আসলে পেসাররা এখানে বেশ সহযোগিতা পাচ্ছে। আগে শুধু স্পিনাররাই বেশি সাফল্য পেত। এখন সেই রকম আর নেই।’ সঙ্গে মাশরাফি রুবেলের সঙ্গে তার সমন্বয়টা জানাতে গিয়ে বলেন, ‘এটা নির্ভর করে ম্যাচের পরিস্থিতির ওপর। পরিস্থিতি যদি রান চেক দেয়া দাবি করে, তবে সেটার জন্যই চেষ্টা করব। আবার ব্রেক থ্রু দরকার হলে সেভাবেই খেলতে হবে। সব মিলিয়ে চেষ্টা থাকবে অধিনায়কের চাহিদা পূরণ করার।’

গত এক বছরে আপনার বোলিং কতটা উন্নত হলো? তাসকিন আগের চেয়ে গতি বেড়েছে বলে জানালেন, ‘আমি প্রতি ম্যাচ থেকেই শেখার চেষ্টা করছি। আগের চেয়ে গতিটা বেড়েছে। সেই সঙ্গে ম্যাচের বিভিন্ন রকম পরিস্থিতিতে খেলছি। এতে অভিজ্ঞতা বাড়ছে। আমি অনেক কিছু শিখছি।’ সঙ্গে যোগ করলেন, ‘যে কোন বলে লাইনটা ঠিক রাখতে চাই। শর্ট হোক বা বাউন্সার হোক, চেষ্টা করব লাইন ঠিক রাখতে। আমাদের পেসাররা পাকিস্তান সিরিজে দারুণ বোলিং করেছে। এবারও আশা করি সবাই ভাল খেলবে।’

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: