২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

প্রাথমিকের শিক্ষকদের ১২ দফা দাবি না মানলে আন্দোলন


স্টাফ রিপোর্টার ॥ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকরা ১২ দফা দাবি জানিয়েছেন। তাদের দাবি মানা না হলে আগামী ৭ আগস্ট ঢাকায় বৃহত্তর আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করবেন বলে জানিয়েছেন শিক্ষকরা।

সোমবার সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) ছোট মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ১২ দফা দাবি উত্থাপন করেন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন ভুঁইয়া।

তিনি বলেন, বেতন স্কেল প্রধান শিক্ষকদের এক ধাপ নিচে নির্ধারণ, পাবলিক সার্ভিস কমিশনের (পিএসসি) মাধ্যমে সহকারী শিক্ষদের নিয়োগ এবং প্রশাসনের সর্বোচ্চ পদ পর্যন্ত শতভাগ পদোন্নতি নিশ্চিত করতে হবে।

এছাড়াও, প্রত্যেক শিক্ষকদের দৈনিক আট থেকে দশটি বিষয় পাঠদানের মতো দানবীয় কর্মকাণ্ড বন্ধ, অন্যান্য সরকারি কর্মচারীদের মতো সপ্তাহে দুই দিন সাপ্তাহিক ছুটি ও পিটিআই এবং সরকারি হাই স্কুলের মতো বছরে ৮৫ দিন ছুটির ব্যবস্থা করা, অন্যান্য সরকারি কর্মচারীদের মতো প্রাথমিক শিক্ষদের শতভাগ পেনশন প্রদান, অনতিবিলম্বে দেশের সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষাক্রম চালু করার দাবি তোলেন শিক্ষকরা।

১২ দফা দাবি আদায়ে সংগঠনের পক্ষে প্রাথমিকভাবে কয়েকটি কর্মসূচিও ঘোষণা করেন শিক্ষক নেতা আনোয়ার হোসেন। কর্মসূচিগুলো হলো, আগামী ১৬ জুন থেকে ২৪ জুলাই পর্যন্ত স্থানীয় পর্যায়ে জনপ্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময়, ২৫ জুলাই থেকে ২৭ জুলাইয়ের মধ্যে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে অবস্থান ও জনমত গঠন, ২৮ জুলাই থেকে ১ আগস্টের মধ্যে ডিসি অফিসের সামনে অবস্থান ও ডিসির মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান, ২ আগস্ট থেকে ৬ আগস্টের মধ্যে বিভাগীয় সমাবেশ।

এরপর দাবি মেনে না নেওয়া হলে ৭ আগস্ট ঢাকায় প্রতিনিধি সমাবেশের মাধ্যমে পরবর্তী বৃহত্তর আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলেও জানান আনোয়ার হোসেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের সভাপতি মো. জাহিদুর রহমান বিশ্বাস, সহ-সভাপতি আবুল বাশার খান, আব্দুল মান্নান, যুগ্ম সম্পাদক নাজমুল হক লিটন, দপ্তর সম্পাদক মো. আজাদুর রহমান প্রমুখ।