২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

লেজারচালিত ড্রোন


লেজারচালিত ড্রোন

জাপানে সুনামিতে ক্ষতিগ্রস্ত ফুকুশিমা পরমাণু কেন্দ্রের জন্য বিশেষ ধরনের স্বয়ংচালিত ড্রোন তৈরির জন্য কাজ করে যাচ্ছেন সেদেশের বিজ্ঞানীরা। ২০১১ সালের মার্চে ফুকুশিমা দাইচি পরমাণু কেন্দ্রটি প্রথমে ভূমিকম্প ও পরে সুনামিতে ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। এরপর এটি অনেকদিন বন্ধ রাখতে হয়েছিল। ড্রোনটি তৈরি করা হচ্ছে পরমাণু চুল্লীর অভ্যন্তরীণ অবস্থা যাচাইয়ের জন্য। এই ড্রোন প্রচলিত দূর নিয়ন্ত্রিত ড্রোনের মতো হবে না।

লেজার রশ্মির সাহায্যে ড্রোনগুলো নিজের যাত্রাপথ ঠিক করে নিতে পারবে। চুল্লীর ভেতরকার দেয়ালের সঙ্গে এটি ধাক্কা খাবে না। জিপিএস যেখানে কাজ করে না সেখানেও ড্রোনটি ব্যবহার করা যাবে। এমনকি প্রয়োজনে নিজেই নিজের ব্যাটারি প্রতিস্থাপন করে নিতে পারবে, কোন সাহায্যকারীর দরকার হবে না। এর আগেও বিজ্ঞানীরা এরকম ড্রোনের পরীক্ষামূলক উড্ডয়ন সম্পন্ন করেছেন। তবে কখন একে পূর্ণোদ্যমে কাজে নামানো হচ্ছে তা এখনই বলা যাচ্ছে না। ২০১১ সালের সুনামিতে পরমাণু কেন্দ্রের শীতলীকরণ ব্যবস্থা পুরোপুরি পানিতে নিমজ্জিত হয়েছিল। এর ফলে কেন্দ্রের ছয়টি চুল্লীর মধ্যে তিনটি গলে গিয়ে বিকিরণ চারপাশে ছড়িয়ে পড়েছিল। এ বছর এপ্রিলে একটি চুল্লীর ভেতর ক্ষুদ্রকায় রোবট নামিয়ে সেখানে অতি উচ্চমাত্রার বিকিরণ রেকর্ড করা হয়। সুনামি বিপর্যয়ের পর এটা ছিল পরমাণু কেন্দ্রটির কোন একটি চুল্লীর ভেতর সরাসরি প্রথম পর্যবেক্ষণ। চুল্লীটি চালুর কয়েক ঘণ্টার মধ্যে এটি বন্ধ করে দিতে হয়েছিল।

-জাপান টাইমস অবলম্বনে

মুঃ আব্দুল্লাহ আল আমীন

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: