১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

এখনও জয়ের প্রত্যাশা ভারতের


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইনিংস উদ্বোধন করতে নামার পর থেকেই একদিকে ব্যাট হাতে ঝড় তুলেছিলেন শিখর ধাওয়ান। অন্যপ্রান্তে যেন নীরব দর্শকের ভূমিকা নিতেই বেশি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছিলেন মুরলি বিজয়। পুরোপুরি টেস্ট মেজাজ নিয়েই ব্যাট চালিয়েছেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ সেঞ্চুরি আদায় করেছেন ডানহাতি এ ব্যাটসম্যান। আউট হয়েছেন ১৫০ রানে। বৃষ্টির দাপটের কারণে এখন পর্যন্ত ফতুল্লা টেস্টে এক ইনিংস শেষ হয়নি। তবে ৬ উইকেটে ৪৬২ রান তুলে বেশ ভাল অবস্থানেই আছে ভারতীয় দল। এ কারণে সংবাদ সম্মেলনে জয়ের প্রত্যাশা ব্যক্ত করলেন বিজয়। তিনি জানালেন দ্রুত আরও কিছু রান করে বাংলাদেশের ওপর চাপ প্রয়োগ করতে চান তাঁরা। জয়ের জন্যই আগামী দু’দিন আপ্রাণ চেষ্টা করবে ভারতীয় দল এমন প্রত্যয় ব্যক্ত করলেন তিনি। শুক্রবার ফতুল্লা টেস্টের তৃতীয় দিনশেষে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন বিজয়।

প্রথম দিন থেকেই বৃষ্টির বাগড়া ফতুল্লায়। দ্বিতীয় দিন একটি বলও হয়নি। তৃতীয় দিনে মধ্যাহ্ন বিরতি পর্যন্ত নির্বিঘেœ ব্যাটিং করতে পারলেও এরপর তিন দফায় বৃষ্টি বিঘœ ঘটিয়েছে। দারুণ ফর্মে আছে সম্প্রতি বিজয়। প্রথম দিনই ৮৯ রান নিয়ে অপরাজিত ছিলেন ধীরেসুস্থে খেলে। গত বছর অস্ট্রেলিয়া সফরে ১৪৪ রানের একটি ইনিংসও খেলেছিলেন ব্রিসবেন টেস্টে। ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ সেঞ্চুরি পেতে বিজয়কে ১১ রানের জন্য অপেক্ষা করতে হয়েছে দুই রাত ও পুরো একটা দিন। কিন্তু নিজের জন্য চিন্তা না করে দলের প্রথম ইনিংসে ৫০০ রান পাওয়াটাকেই গুরুত্ব দিয়েছেন তিনি। অবশেষে সেটা পেয়েও গেছেন। যদিও তৃতীয় দিনে বাংলাদেশী বোলাররা বেশ ভাল বোলিং করার কারণে দ্রুতবেগে রান করতে পারেননি। কিন্তু বলের গুণাগুণ বিবেচনা করেই খেলেছেন। তৃতীয় দিনে আরও ১১৪ বল খেলে ৬১ রান যোগ করেছেন। শেষ পর্যন্ত তৃতীয়বারের মতো ক্যারিয়ারে ১৫০ রান করেছেন ২৭২ বল খেলে ১২ চার ও ১ ছক্কায়। এ বিষয়ে বিজয় বলেন, ‘আমি বুঝতে পারছিলাম বৃষ্টি আসছে। এ কারণে প্রথমত গুরুত্ব দিয়েছি যত দ্রুত দলকে ৫০০ রানে পৌঁছে দেয়ার। নিজের বাড়তি কোন অর্জনের চিন্তা মাথায় কাজ করেনি। তবে যে বলে আউট হয়েছি সেটার ক্ষেত্রে আমার শট নির্বাচন ভুল হয়েছে।’

প্রথমদিনের সম্পূর্ণ বিপরীত চিত্র দেখা গেছে তৃতীয় দিন বাংলাদেশের বোলিংয়ে। তরুণ লেগস্পিনার দারুণ দুটি গুগলিতে অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও ঋদ্ধিমান সাহাকে বোল্ড করেছেন। তাঁর বিষয়ে বিজয় বলেন, ‘অবশ্যই তিনি একজন ভাল বোলার। সে কারণেই তিনি বাংলাদেশ দলের হয়ে খেলছেন।’ তবে বাংলাদেশী স্পিনাররা যেভাবে ভাল বল করেছে সেজন্য নিজেদের বোলিং বিভাগ নিয়ে বেশ আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছেন বিজয়। তিনি বলেন, ‘হরভজন এবং অশ্বিন দারুণ দু’জন অফস্পিনার। তাদের সামর্থ্য আছে ভাল কিছু করার। আমরা অবশ্যই জয় পাওয়ার জন্য মরিয়া হয়ে থাকব। আমরা পরদিন আরও ব্যাট করব কিনা সেটা আবহাওয়া পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করবে। তবে ব্যাট করতে নামলে যত দ্রুত সম্ভব বেশি রান করে ওদের ওপর (বাংলাদেশ দল) চাপ সৃষ্টি করতে চাই।’ টেস্টের আর মাত্র দু’দিন বাকি আছে। তবু জয়ের আশা ছাড়ছেন না বিজয়। ভারতীয় দলও স্বপ্ন দেখছে ফতুল্লা টেস্ট জয়ের। বিজয় বলেন, ‘আমরা অবশ্যই জয়ের জন্যই খেলব। আশা করছি সেজন্য যা করার প্রয়োজন তা আমরা করতে সক্ষম হব।’

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: