২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

রাজধানীতে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে যুবক হত, গৃহবধূর মৃত্যু


স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর কদমতলীর জুরাইনে ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে এক যুবক নিহত হয়েছেন। ডেমরায় এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ নিহতের স্বামী বাবর আলীকে আটক করেছে। পৃর্থক সড়ক দুর্ঘটনা ও ট্রেনে কাটা পড়ে তিনজন নিহত হয়েছেন। এদিকে উত্তরায় দুই ইয়াবা সম্রাটকে গ্রেফতার করেছে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর। মঙ্গলবার পুলিশ ও মেডিক্যাল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, মঙ্গলবার সকালে কদমতলী থানার জুরাইন পোকারবাজার এলাকায় ছিনতাইকারীরা মোঃ মামুন (২০) নামে এক যুবককে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে নগদ টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নিয়েছে। পরে স্থানীয়রা মামুনকে গুরুতর আহতাবস্থায় উদ্ধার করে সকাল ৮টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে আনলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহতের বাবার নাম আব্দুর রাজ্জাক ফকির। গ্রামের বাড়ি শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া উপজেলায়। তিনি জুরাইনের কমিশনার রোডের একটি বাাড়িতে ভাড়া থাকতেন। নিহতের দুলাভাই জাকির হোসেন জানান, সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে কাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে ছিনতাইকারীরা মামুনকে ছুরিকাঘাত করে তার মোবাইল ফোন নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে আহতাবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তিনি জানান, মামুন কিছুটা সুস্থ হলে মঙ্গলবার ভোরের দিকে স্বজনরা তাকে জুরাইনের কমিশনার গলির ভাড়া বাসায় নিয়ে যায়। পরে অবস্থার অবনতি হলে আবারও ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। হাসপাতাল ফাঁড়ি পুলিশের পরিদর্শক মোজাম্মেল হক জানান, খবর পেয়ে কদমতলী থানার পুলিশ হাসপাতালে তাঁর লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে পাঠায়।

গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু ॥ সোমবার গভীর রাতে ডেমরা থানার চারুলিয়া ব্যাংক কলোনির বাসায় কুলসুম আকতার (১৯) নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ নিহতের স্বামী বাবর আলীকে আটক করেছে। নিহতের গ্রামের বাড়ি মেহেরপুর জেলার ইসলামপুর এলাকায়। নিহতের স্বামী বাবর আলী পুলিশকে জানান, ডেমরার চারুলিয়া ব্যাংক কলোনিতে তারা ভাড়া থাকেন। তিনি রাজমিস্ত্রির কাজ করেন। তিনি জানান, প্রতিদিনের মতো সোমবার সকালে কাজে বের হন তিনি। রাত ১১টায় বাসায় ফিরে দেখেন তার স্ত্রী গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় ঘরের মেঝেতে পড়ে আছেন। পরে তাঁকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ১২টায় তাঁর মৃত্যু হয়। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই সেন্টু চন্দ্র দাস জানান, বাবর আলীর কথায় অসংলগ্নতা পাওয়ায় তাকে আটক করা হয়েছে। পরে তাকে ডেমরা থানা পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে গৃহবধূ কুলসুমের লাশের ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

পৃথক দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত ॥ মঙ্গলবার বিকেলে ডেমরা থানার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে সিমেন্টবাহী একটি ট্রাক যাত্রীবাহী মিনিবাসকে ধাক্কা দেয়। এতে মিনিবাসের হেলপার আরমান (১২) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোজাম্মেল হক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, নিহত আরমানের সহকর্মী ইব্রাহিম ও রমজান জানায়, পেছন থেকে সিমেন্টবাহী ট্রাকের ধাক্কায় নিচে পড়ে গেলে ওই গাড়িটি আরমানকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এদিকে সোমবার গভীর রাতে রাজধানীর হাজারীবাগের লেদার টেকনোলজি কলেজের সামনে বালুবাহী ট্রাকের ধাক্কায় সোহেল আহম্মেদ (২৫) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন মোটরসাইকেলে থাকা দুই আরোহী। পরে পুলিশ তাঁর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হলেনÑ মোঃ রায়হান উদ্দিন (২৩) ও রনি (২২)। তাঁরা হাজারীবাগের বাসিন্দা। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী ইনচার্জ এএসআই সেন্টু চন্দ্র দাস জানান, সোমবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে হাজারীবাগ লেদার টেকনোলজি কলেজের সামনে বালুবাহী একটি ট্রাক একটি মটরসাইকেলকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে মটরসাইকেলের ওই তিন আরোহী রাস্তায় ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হন। পরে তাদের ঢামেক হাসপাতালে আনা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ১২টার দিকে সোহেল আহম্মেদের মৃত্যু হয়। অন্যদিকে মঙ্গলবার সকালে জুরাইন রেলক্রসিংয়ে ট্রেনের ধাক্কায় অজ্ঞাত (৫০) এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। ঢাকা রেলওয়ে থানার ওসি আব্দুল মজিদ জানান, মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে জুরাইন রেললাইন পার হওয়ার সময় ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। নিহতের পরনে লুঙ্গি ও গামছা ছিল।

উত্তরায় দুই ইয়াবা সম্রাট আটক ॥ ঢাকা মহানগর মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রল অধিদফতরের এক সাঁড়াশি অভিযানে রাজধানীর দক্ষিণখান এলাকার একটি মাদক আস্তানা থেকে ১৩ হাজার পিস ইয়াবা উদ্বার করা হয়েছে। এ সময় দুই ইয়াবা সম্রাটকে আটক করা হয়। তারা হলেনÑ রাশেদুজ্জামান ও মোহাম্মদ হোসেন। উত্তরা জোনের পরিদর্শক কামরুল ইসলাম ও খিলগাঁও জোনের পরিদর্শক শামসুল কবির যৌথভাবে এ অভিযান চালানোর সময় আটক দুই ইয়াবা ব্যবসায়ী পালানোর চেষ্টা করেন। তাদের আটক করার পর আস্তানায় অভিযান চালানো হয়। কামরুল ইসলাম জানান, আটক দু’জন এর আগেও একাধিকবার ইয়াবা ব্যবসার দায়ে গ্রেফতার হয়ে জেল খেটেছেন। তারা টেকনাফের গডফাদার শফিকের কাছ থেকে ইয়াবা এনে রাজধানীতে বিক্রি করতেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: