১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

মুন্সীগঞ্জে অগ্নিদগ্ধ হয়ে গৃহবধূর মৃত্যু


স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ শনিবার দুপুরে অগ্নিদগ্ধ হয়ে পপি সেন (১৮) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার মধ্যপাড়া ইউনিয়নের মালদদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ নিহতের শ্বশুর সুনীল সেন, শাশুড়ি কনক সেন ও দেবর সুজন সেনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে সিরাজদিখান থানায় নিয়ে আসেন।

পপির বাবা নারায়ণগঞ্জের পালপাড়ার খোকন দে জানান, মাত্র ৬ মাস আগে সুমন সেনের সঙ্গে তার মেয়ের বিয়ে হয়। বিয়ের ক’দিন পর সুমন মালয়েশিয়ায় চলে যায়। বিয়ের পর থেকেই শাশুড়ি, শ্বশুর, দেবর যৌতুকের জন্য নির্যাতন করে আসছে। আজকে আমার মেয়েডারে মাইরাই ফালাইলো।

মুন্সীগঞ্জে বরযাত্রীর ট্রলারে ডাকাতি আহত ৬

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ শুক্রবার রাতে সদর উপজেলার বকচরে মেঘনা নদীতে বরযাত্রীবাহী ট্রলারে ডাকাতি হয়েছে। এ সময় ডাকাতদের আঘাতে ৬ জন আহত হন। তাদের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। জানা গেছে, বন্ধু জনি মিয়ার বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে তারা মুন্সীগঞ্জের মিরেশ্বর থেকে বকচরে যান। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সেরে ফেরার পথে বরযাত্রীবাহী ট্রলারটি মেঘনা নদীর লাগ ঘেষা পিছামারা খালে পৌঁছলে অতর্কিতে ইঞ্জিনবাহী একটি ট্রলার বরযাত্রীবাহী ট্রলারটির গতি রোধ করে। ১০-১২ জনের ডাকাত দলের সমদস্যরা বরযাত্রীবাহী ট্রলারে উঠে যাত্রীদের এলোপাতাড়ি মারধর করে। এ সময় সবকিছু লুট করে ডাকাতরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় শনিবার বিকেলে সদর থানার মামলা দায়ের করা হয়েছে।

না’গঞ্জে অগ্নিকা-ে একজনের মৃত্যু

নিজস্ব সংবাদদাতা, সিদ্ধিরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, ৬ জুন ॥ বন্দরে আগুনে পুড়ে মিন্টু লাল নামে একজনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। শনিবার ভোরে উপজেলার একরামপুর সুইপার কলোনিতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের স্বজনরা জানায়, বাবুল লালের ছেলে মিন্টু লাল শুক্রবার মধ্যরাতে নিজের ছোট টিনের ঘরে একা ঘুমোতে যায়। রাত চারটার দিকে আগুন দেখতে পেয়ে প্রতিবেশীরা দরজা ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে পানি দিয়ে আগুন নেভায়। এ সময় তারা মিন্টু লালের পুড়ে যাওয়া মৃতদেহ দেখতে পায়। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

লালমনিরহাটে বজ্রপাতে শ্রমিক নিহত

নিজস্ব সংবাদদাতা, লালমনিরহাট, ৬ জুন ॥ জেলার পাটগ্রাম উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামে শুক্রবার সন্ধ্যায় ৭ টায় বজ্রপাতে শফিকুল ইসলাম (২০) নামের এক পাথর শ্রমিক নিহত হয়েছে। এই সময় নারীসহ কমপক্ষে ১২ ব্যক্তি আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে ৭জন পাটগ্রাম স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দিতে ভর্তি হয়েছে। বজ্রপাতে নিহত শফিকুল ইসলাম পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী ইউনিয়নের উফারমারা গ্রামের হামিদুল হকের ছেলে।