১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

উয়ারী বটেশ্বরে জাদুঘর স্থাপন করা হবে ॥ মেনন


নিজস্ব সংবাদদাতা, নরসিংদী, ৫ জুন ॥ বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এমপি বলেছেন গবেষণার মাধ্যমে শিকড়ের সন্ধান করছি, পেয়েছিও বটে। প্রতœতত্ত্ব খনন কাজের মাধ্যমে বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে। উয়ারী বটেশ্বর পৃথিবীর মানচিত্রে নিদর্শন হয়ে থাকবে। পর্যটন অঞ্চলে পরিনত হবে। ইতিহাসের জন্য এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আগামী অক্টোবরে বৌদ্ধ নিদর্শন পর্যটন সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এতে উয়ারী বটেশ্বর গুরুত্বের সঙ্গে স্থান পাবে। এ সময় বিশ্বের বৌদ্ধরা উয়ারী বটেশ্বরকে উপলব্ধি করতে পারবে। একজন পর্যটক বাংলাদেশে এলে ১১ জন লোকের কর্মসংস্থান হয়। শীঘ্রই উয়ারী বটেশ্বরে জাদুঘর স্থাপন করা হবে। তিনি শুক্রবার সকালে উয়ারী বটেশ্বর প্রতœাঞ্চলের চতুর্দশ প্রতœতাত্ত্বিক খননকার্য ২০১৪-১৫ এর আবিষ্কারসমূহের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বক্তব্যে এসব কথা বলেন। প্রতœতাত্ত্বিক গবেষণা কেন্দ্র ঐতিহ্য অন্বেষণের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ড. নুহ-উল আলম লেলিনের সভাপতিত্বে শিবপুর উপজেলার টঙ্গীরটেক প্রতœস্থানে অনুষ্ঠিত সমাপনী অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন সিরাজুল ইসলাম মোল্লা এমপি, বাংলাদেশ ইতিহাস সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. আশা ইসলাম নাঈম, নরসিংদীর জেলা প্রসাশক আবু হেনা মোরশেদ জামান, পুলিশ সুপার আমেনা বেগম বিপিএম, শিবপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম মৃধা, ঐতিহ্য অন্বেষণের ট্রাস্টি মোঃ হাবিবুল্লা পাঠান, ঐতিহ্য অন্বেষণের নির্বাহী পরিচালক ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতœতত্ত্ব বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ড. সুফি মোস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ। বক্তারা উয়ারী বটেশ্বরকে পর্যটন নগরী হিসেবে ঘোষণা দিয়ে রাস্তাঘাট, অবকাঠামো নির্মাণের দাবি জানান।