২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৩ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

সাড়ে সাত কোটি কম্বলের একটি হস্তান্তর করতে চান রহিম


সংবাদদাতা, শাহজাদপুর, সিরাজগঞ্জ, ৫ জুন ॥ চরম অসুস্থ দরিদ্র আব্দুর রহিম প্রামাণিক বর্তমানে বিড়ি, সিগারেট বিক্রি করে ৮ সদস্যের বৃহৎ পরিবারের ভরণপোষণ করছেন অতিকষ্টে। সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর পৌরসদরের রূপপুর মহল্লায় ছোট্ট একটি টিনের ঘরে তার বসবাস। তার বাবা মৃত আলী আকব্বার প্রামাণিক রিলিপ হিসাবে একটি কম্বল তৎকালীন বেলতৈল ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের মাধ্যমে পান। তীব্র অভাব আর অনটন সত্ত্বেও দরিদ্র আব্দুর রহিম প্রায় ৪০ বছর ধরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি যে বিনম্র শ্রদ্ধা আর নিখাদ ভালবাসা প্রদর্শন করেছেন তা জাতির জন্য বিরল এক দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে নিঃসন্দেহে। বড় ভাই সাবেক সেনা সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আনছার আলী ১৯৭৪ সালে মারা যান। বড় ভাই মারা যাবার পর পিতার নিকট থেকে তিনি কম্বলটি পান। আব্দুর রহিম অর্থাভাবে শীতবস্ত্র ক্রয় করতে না পারলেও প্রায় ৪০ বছরেও জাতির জনকের উপহারটি ব্যবহার করেননি। আজও অম্লান ও অক্ষত অবস্থায় সযতনে বুকে আগলে রেখেছেন কম্বলটিকে। রহিম প্রামাণিক বর্তমানে বয়সের ভারে ন্যূব্জ হয়ে পড়লেও বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধাবোধ আর অকৃত্রিম ভালবাসার কারণে কম্বলটিকে নষ্ট হতে দেননি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক আব্দুর রহিমের বঙ্গবন্ধুর উপহারস্বরূপ প্রাপ্ত সেই সাড়ে ৭ কোটি কম্বলের অক্ষত ১টি কম্বল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হস্তান্তর করতে পারলে মরেও শান্তি পাবেন-এমনটাই জানিয়েছেন। অসুস্থ শরীরে জীবনের সায়াহ্নে তিনি তার শেষ ইচ্ছাটি পূরণে প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।