২৪ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

বিমানের কেবিন ক্রুর রহস্যজনক মৃত্যু


স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিষক্রিয়ায় নুর আলম আজাদ সৌরভ (৩৮) নামে বাংলাদেশ বিমানের এক কেবিন ক্রুর মৃত্যু হয়েছে। টাকা-পয়সা লেনদেনের জের ধরে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পরিবারের।

বৃহস্পতিবার বিকেলে তার মৃত্যু হয়। তিনি বগুড়ার আফজাল হোসেনের ছেলে। সৌরভ পরিবারের সঙ্গে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের ইকবাল রোডে বসবাস করতেন।

তার ছোট ভাই মাসুম হোসেন জানান, বাংলাদেশ বিমানে চাকরির পাশাপাশি গুলশানে অবস্থিত পিংক সিটিতে তার ভাইয়ের একটি কাপড়ের দোকান রয়েছে। এর সূত্র ধরে গুলশান পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) মাহাবুব আলমের সঙ্গে তার পরিচয় ও বন্ধুত্ব হয়। এসআই মাহাবুব পার্টনারশিপ ব্যবসার জন্য তাকে বেশকিছু টাকা দেন। কিন্তু কিছুদিন ধরে তিনি আর ব্যবসা করবেন না বলে টাকা ফেরত চাচ্ছিলেন। সেই টাকা দিতে বৃহস্পতিবার সকালে গুলশান আজাদ মসজিদের সামনে যাওয়ার কথা বলে বাসা থেকে বের হন সৌরভ। দুপুরের পর থেকে তার কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। লোক মারফত খবর পেয়ে রাতে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এসে তার মৃতদেহ শনাক্ত করি।

ঢাকা মেডিক্যাল পুলিশ ক্যাম্পের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) সেন্টু চন্দ্র দাস জানান, বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে দু’জন লোক সৌরভকে মেডিক্যালে ভর্তি করেন। তারা পুলিশকে জানান যে তীব্র গরমের কারণে সৌরভ বমি করছেন। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সৌরভ মারা যান। মেডিক্যাল রিপোর্টে তার মৃত্যুর কারণ হিসেবে অজ্ঞাত বিষক্রিয়ার কথা বলা হয়েছে। টাকার জন্য এসআই মাহাবুব সৌরভকে হত্যা করে থাকতে পারেন বলে অভিযোগ করেছেন মাসুম। এ ব্যাপারে গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম জানান, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।