২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৩ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

সেপ ব্ল্যাটারের উত্তরসূরি কে?


অনলাইন ডেস্ক : ফুটবলের আন্তর্জাতিক নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফার প্রধান সেপ ব্ল্যাটার ফিফার প্রেসিডেন্ট পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেয়ার পর ফুটবল বিশ্বে এখন বড় প্রশ্ন হলো কে হচ্ছেন ফিফার পরবর্তী প্রেসিডেন্ট।

যদিও ফিফা কংগ্রেসের বিশেষ অধিবেশন ডেকে নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করতে কিছুটা সময় নেবে তারপরেও বিশ্লেষকরা মনে করছেন ফিফার সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট হিসেবে এখন সবচেয়ে বড় নাম হলো মিশেল প্লাতিনি।

ইউরোপীয় ফুটবলের বর্তমান প্রধান মিশেল প্লাতিনি ফিফা প্রশাসনে দুর্নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার ছিলেন। এমনকি পঞ্চম দফায় ব্ল্যাটার নির্বাচিত হওয়ার পর প্রকাশ্যেই ইউরোপীয় ফুটবলের অনেকে তাঁর বিরুদ্ধে উষ্মা প্রকাশ করে বক্তব্য দিয়েছেন প্রকাশ্যেই।

বিবিসির সাবেক ক্রীড়া সম্পাদক মিহির বোস মনে করেন ব্ল্যাটার পরবর্তী ফিফা প্রশাসনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পদটির জন্য বড় নাম এ মূহুর্তে মিশেল প্লাতিনি। এক সাক্ষাতকারে মিহির বোস বলেন, “আর কোন নাম বলা মুশকিল। এশিয়া আফ্রিকা থেকে আসতে পারে। কিন্তু বড় নাম হবে প্লাতিনি” ।

তিনি বলেন ফুটবল বিশ্ব এখন দুভাগ হয়ে গেছে। কেউ কেউ বলবে ব্ল্যাটার তাদের ফুটবলের জন্য অনেক সহায়তা করেছেন। তাই এখন যে-ই প্রেসিডেন্ট হবেন তাকে এটাকে এক করতে হবে।

সেপ ব্ল্যাটারের সাথে ইউরোপীয় ফুটবলের প্রধান মিশেল প্লাতিনি। পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হিসেবে তাঁর সম্ভাবনার কথা বলছেন বিশ্লেষকরা অনেকেই।

গত প্রায় দুদশক ধরে ফুটবল বিশ্বের সবচাইতে ক্ষমতাধর ব্যক্তিত্ব মিস্টার ব্ল্যাটার। ১৯৯৮ সাল থেকে টানা ফিফার সভাপতির পদে রয়েছেন ৭৯ বছর বয়স্ক এই সুইস নাগরিক এবং এবারেরটা ছিল তার ৫ম মেয়াদ।

অবশ্য পদত্যাগের ঘোষণা দিলেও এখনই চেয়ার ছাড়া হচ্ছে না মিস্টার ব্ল্যাটারের।

পরবর্তী যে এক্সট্রাঅর্ডিনারি কংগ্রেসে নতুন সভাপতি নির্বাচিত হবার কথা রয়েছে সেটির জন্য অপেক্ষা করতে হবে অন্ততপক্ষে আসছে ডিসেম্বর মাস পযন্ত।

এদিকে এই পদত্যাগের ঘোষণায় ফুটবল বিশ্বে মিশ্র প্রতিক্রিয়া হচ্ছে।

ইউরোপিয়ান ফুটবল কর্তৃপক্ষ ইউয়েফা প্রেসিডেন্ট মিচেল প্লাতিনি বলেন, তার এই সিদ্ধান্ত ছিল কঠিন, সাহসী এবং সঠিক।

ইংলিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান গ্রেগ ডাইক এটাকে অসাধারণ খবর বলে বর্ণনা করেন।

এদিকে গত সপ্তার নির্বাচনে পরাজিত জর্ডানের প্রিন্স আলী বিন আল হুসেইন বলেছেন তিনি পুননির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবার জন্য প্রস্তুত হবেন।

সূত্র : বিবিসি