২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৭ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

ভৈরব চেম্বারের নির্বাচন প্রচার জমে উঠেছে


নিজস্ব সংবাদদাতা, ভৈরব ॥ ভৈরব চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির দ্বি-বার্ষিক (২০১৫-২০১৭) নির্বাচন প্রচারণা জমে উঠেছে। এবারের নির্বাচনে সভাপতি পদে দুজন সদস্য মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এরা হলেন বর্তমান সভাপতি আলহাজ মোঃ হুমায়ুন কবির ও ব্যবসায়ী আব্দুল্লাহ আল মামুন। এছাড়া সিনিয়র সহ-সভাপতি পদে মোঃ আব্দুল মালেক, এম.এ রউফ, মোঃ মোশারফ হোসেন ও মোমেন হাসান এবং সহ-সভাপতি পদে রিয়াজ আহমেদ মারুকীশাহিন ও আবু বকর সিদ্দিক নির্বাচনে লড়বেন।

চেম্বারের ১৪টি কার্যনির্বাহী সদস্য পদে এবার ২৪ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছে। এরা হলো আফজাল ভূইয়া, তোফাজ্জল হোসেন, সেলিম মিয়া, জিল্লুর রহমান, জাহিদুল হক জাবেদ, মোঃ আল আমিন, আসাদুজ্জামান রিপন, মাহমুদুল হাসান রিগান, হেলাল উদ্দিন, নাজমুল হাসান রুবেল, সাখাওয়াত হোসেন সুজন, মাসদুর রহমান রিপন, আরিফিন জালাল রাজীব, মোঃ আলা উদ্দিন, রুমান মোল্লা, জয়নাল আবেদীন ভূইয়া, মোঃ হুমায়ুন কবির, নিজাম উদ্দিন, মোবারক হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান মানিক, বশির আহমেদ, মিজান পাটোয়ারী, কাজি মাসউদ উর রহমান ও মঈনুল ইসলাম বেকুল। এছাড়া কার্যনির্বাহী পরিষদের সহযোগী সদস্যের ৪টি পদে ৭ জন প্রার্থী হয়েছে। এরা হলো মো. কাঞ্চন মিয়া, আব্দুর রশিদ, আবুল হাসেম, সুজন মিয়া, মুসলিম মিয়া, নিজাম মাহমুদুল জুয়েল ও মোঃ আক্তারুজ্জামান।

প্রার্থীরা গত ১৫ মে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। নির্বাচন কমিশন আগামী ১৫ জুন ভোট গ্রহণের দিন নির্ধারণ করেছে। এবারের নির্বাচনে ৭শ’ ৬৪ জন সাধারণ সদস্য ভোটার এবং ৪৬ জন সহযোগী সদস্য ভোটার তাদের ভোট প্রয়োগ করবে। সাধারণ সদস্য ভোটাররা ১৪ জন কার্যনির্বাহী সদস্যকে এবং সহযোগী সদস্য ভোটাররা কার্যনির্বাহী পরিষদের ৪ জন সহযোগী সদস্যকে ভোট দিবে।

ভৈরব চেম্বারের নির্বাচন মনোনয়নপত্র দাখিলের আগে থেকেই এবার প্রচারণা শুরু হয়েছে। বিশেষ করে সভাপতি, সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সহ-সভাপতির পদটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এ চেম্বারে গত মেয়াদের নির্বাচনেও সভাপতি পদে এবারের ২জন প্রার্থী ছিলেন। তখন নির্বাচনে আলহাজ মোঃ হুমায়ুন কবির জয়ী হন। গত নির্বাচনে ভোটার সংখ্যা ছিল ২শ’ ৬৫ জন এবং এবার ৮শ’ ১০ জন। চেম্বারের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে পৌরসভা নির্বাচনের মতো ভৈরব শহর পোস্টার, ব্যানার, স্টিকারে ছেয়ে গেছে। সকল প্রার্থীই শহরের বিভিন্ন মোড়সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বড় বড় ব্যানার লাগিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছে। ভৈরবের ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানগুলোতে প্রার্থীরা স্টিকার হ্যান্ডবিল পৌঁছে দিচ্ছে।