১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ইংলিশ-কিউই সমানে সমান


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ কথার কথা নয়, বাস্তবিকই হেডিংলি টেস্টে লড়াই হচ্ছে সমানে-সমান। নিউজিল্যান্ডের ৩৫০Ñ এর জবাবে প্রথম ইনিংসে স্বাগতিক ইংল্যান্ডও গুটিয়ে গেছে ঠিক ৩৫০ রানে! টেস্ট ইতিহাসের প্রায় ১শ’ ৪০ বছরের ইতিহাসে মাত্র অষ্টমবারের মতো ঘটল এমন কাকতালিয় ঘটনা। রবিবার তৃতীয় দিন এ রিপোর্ট লেখার সময় দ্বিতীয় ইনিংসে সফরকারী কিউইদের সংগ্রহ ২ উইকেটে ৫৫ রান। হিসেবটাও সহজ, ব্রেন্ডন ম্যাককুলামদের লিড ৫৫! সব মিলিয়ে রোমাঞ্চকর সমাপ্তির ইঙ্গিত দিচ্ছে সিরিজ নির্ধারণী দ্বিতীয় টেস্ট।

৫ উইকেটে ২৫৩ রান নিয়ে কাল দিনের খেলা শুরু করে ইংল্যান্ড। ওপেনিংয়ে এ্যালিস্টার কুক-এ্যাডাম লিথের দারুণ জুটি সত্ত্বেও টপঅর্ডার ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় বড় সংগ্রহ পায়নি স্বাগতিকরা। টিম সাউদির গতির তোপে বাকি ৫ উইকেট হারিয়ে আর ৯৭ রান যোগ করতে সক্ষম হয় ইংলিশরা। শেষদিকে স্টুয়ার্ড ব্রডের ৩৯ বলে ৪৬ রানের ঝড়ো ইনিংস তাদের সমান সংগ্রহ পাইয়ে দেয়। সাউদি ৪, অপর পেসার ট্রেন্ড বোল্ট ও স্পিনার মার্ক ক্রেইগ প্রত্যেকে নেন ২টি করে উইকেট।

তবে ইংল্যান্ডকে সমানে-সমান পুঁজি এনে দেয়ার রূপকার দুই ওপেনারই। কুক ৭৫ রানে আউট হলেও ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নেন তরুণ ওপেনার এ্যাডাম লিথ (১০৭)। ওপেনিংয়ে লিথ-কুক ১৭৭ রান যোগ করেন। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওপেনিং জুটিতে যা ইংল্যান্ডের চতুর্থ সর্বোচ্চ রান। এই ইনিংসের মধ্য দিয়েই অবশ্য গ্রেট গ্রাহাম গুচকে (৮,৯০০) টপকে ইংল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ টেস্ট রানের রেকর্ডটি নিজের করে নেন অধিনায়ক কুক (৮,৯৪৪)। তার আগে ২ রানে ২ উইকেট হারিয়ে শুরুতে ধাক্কা খেলেও প্রথম ইনিংসে সফরকারীদের ব্যাটিং ছিল ‘পুরাই’ ওয়ানডে-স্টাইলের! সাড়ে ৩শ’ রান তুলতে ৭২.১ ওভার ক্রিজে থাকেন ব্রেন্ডন ম্যাককুলামরা।

শুক্রবার প্রথম দিন ৬৫ ওভারে ৮ উইকেটে ২৯৭ রান যোগ করে তারা। শনিবার বাকি ২ উইকেট হারিয়ে আরও ৫৩। যেখানে বড় অবদান লুক রনকির। সাত নম্বরে নেমে সর্বোচ্চ ৮৮ রান করেন ৩৪ বছর বয়সে অভিষিক্ত রনকি। ৭০ বলের ঝড়ো ইনিংসে ছিল ১৩ চার ও ৩ ছক্কার মার। স্ট্রাইক রেট ১২৫.৭১। টেস্ট অভিষেকে দ্বিতীয়সেরা স্ট্রাইক রেটের রেকর্ড এটি! ১৯২.৫০ স্ট্রাইক রেট নিয়ে এ তালিকায় সবার ওপরে টিম সাউদি। ২০০৮ সালে নেপিয়ারে এই ইংলিশদের বিপক্ষেই ৪০ বলে অপরাজিত ৭৭ রান করেছিলেন কিউই পেসার। ফাইটিং সংগ্রহের পথে এছাড়া ওপেনার টম লাথাম করেন ৮৪ রান। একের পর এক সাজঘরে ফেরার মধ্যেও ধুরন্ধর ব্যাটিং অব্যাহত রাখে কিউইরা। রস টেইলর ২৭ বলে ২০, অধিনায়ক ম্যাককুলাম ২৮ বলে ৪১, শেষদিকে মার্ক ক্রেইগ ৬৩ বলে অপরাজিত ৪১ ও ম্যাট হেনরি ২১ বলে করেন ২৭ রান! ইংল্যান্ডের হয়ে ব্রড ৫, অপর দুই পেসার এ্যান্ডারসন ও মার্ক উড নেন ২টি করে উইকেট।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: