১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ইমামের একি কাণ্ড


নিজস্ব সংবাদদাতা, মাদারীপুর, ৩১ মে ॥ মাদারীপুর সদর উপজেলার চরঘুনসি গ্রামে এক ইমামের বিরুদ্ধে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শিশুটিকে গুরুতর অবস্থায় রবিবার সকালে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে ধর্ষক ওবাইদুর পলাতক রয়েছে। জানা গেছে, শনিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে চরঘুনসি গ্রামের হাওলাদার বাড়ি জামে মসজিদের ইমাম ওবাইদুরের কাছে আরবী পড়তে যায় চরঘুনসি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর ওই ছাত্রী। আরবী পড়া শেষে ওবাইদুর শিশুটিকে মসজিদ ঝাড়ু দিতে বলে। এ সময় শিশুটিকে একা পেয়ে ওবাইদুর মসজিদের সঙ্গে লাগানো বারান্দায় তাকে নিয়ে দরজা বন্ধ করে দিয়ে শিশুটির মুখ বেঁধে ধর্ষণ করে। এতে শিশুটির প্রচুর রক্তপাত হয় এবং সে অসুস্থ হয়ে পড়ে। ওবাইদুর ঘটনাটি কাউকে জানাতে নিষেধ করে। জানালে তাকে মেরে নদীতে ভাসিয়ে দেয়া হবে বলে হুমকি দেয়। ফলে ভয়ে শিশুটি চুপ থাকলেও বাড়িতে গিয়ে সব ঘটনা তার মাকে জানায়। মা দ্রুত তাকে গ্রাম্য এক ডাক্তারের কাছে নিয়ে গোপনাঙ্গে সেলাইসহ চিকিৎসা করায়। রাতে শিশুটি আরও অসুস্থ হয়ে পড়লে রবিবার সকালে তাকে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলছে।

বাগেরহাটে ধর্ষক

গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার বাগেরহাট থেকে জানান, সাত বছর বয়সী এক স্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। শনিবার রাতে সদর উপজেলার ডেমা ইউনিয়নের হেদায়েতপুর গ্রাম থেকে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত অভিযোগে আবু তালেবকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। এ ঘটনায় আবু তালেবকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। রবিবার বিকেলে আদালতের নির্দেশে আবু তালেবকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।