২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

কলাপাড়ায় সাইনবোর্ড টাঙিয়ে ১০ লাখ টাকা নিয়ে উধাও


নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া, ৩০ মে ॥ আরেক হায় হায় কোম্পানি। সাইনবোর্ড টানিয়ে লোন দেয়ার কথা বলে তিন দিনের মধ্যে প্রায় ১০ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে ‘জনকল্যাণ সংস্থা’। সাত-আট জনের একটি চক্র মৎস্যবন্দর আলীপুরে সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে শতাধিক মানুষের এ পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে। লাখ টাকার লোনে সঞ্চয় ১০ হাজার, দুই লাখে কুড়ি হাজার এমন প্রলোভন দেখিয়ে বিপুল অঙ্কের অর্থ হাতিয়ে এ চক্রটি লাপাত্তা হয়ে গেছে। একটি সাইনবোর্ড, বাকিতে কেনা একটি টেবিল, একটি আলমারি, কয়েকটি রেজিস্টার্ড এবং কর্মী হিসেবে চাকরি দেয়ার কথা বলে স্থানীয় এক নারী-কর্মীকে কয়েক ঘণ্টার জন্য অফিসে বসিয়ে চক্রটি এমন প্রতারণা করেছে। আলীপুরের হাজী ফরিদের একটি ঘর (শওকত মঞ্জিল) মাসিক পাঁচ হাজার টাকার ভাড়া চুক্তিতে এমন অপকর্ম করেছে।

মঙ্গলবার থেকে বৃহস্পতিবার এ তিন দিনে এ পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নেয় এ চক্রটি। বুধবার রাতে ‘জনকল্যাণ সংস্থা’ নামে একটি সাইনবোর্ড টানিয়ে দেয়। যেখানে লেখা রয়েছে, সরকার অনুমোদিত গভঃ রেজিঃ নং ঢ-০৫৭০/১৯৯০ ইং এবং আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন প্রকল্প শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও ঋণ কর্মসূচীর কথা উল্লেখ করে এম.আর.এ সনদ নং ০০৮৫৩-০১৭১৭-০০৭৪৩, আর্থিক সহযোগিতায় পি.কে.এস.এফ এর কথাও উল্লেখ রয়েছে। এরপর লতাচাপলী ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রাম ও কুয়াকাটা পৌর এলাকায় লোন দেয়ার নামে ৫/৭ জনকে নিয়ে দল গঠনে নেমে পড়ে।

শনিবার থেকে লোন কার্যক্রম শুরু হবে বলে জনপ্রতি সর্বনি¤œ পাঁচ হাজার এবং সর্বোচ্চ ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আলীপুরের ব্রয়লার মুরগি ব্যবসায়ী দিলীপের কাছ থেকে বৃহস্পতিবার ২০ হাজার টাকা সঞ্চয় হিসেবে নেয় এ চক্রটি। তাকে শনিবার দুই লাখ টাকা লোন দেয়ার কথা ছিল। দিলীপের পড়শি রাজ্জাকের কাছ থেকে কুড়ি হাজার এবং ক্ষুদে ব্যবসায়ী তাওহীদের কাছ থেকে সঞ্চয় বাবদ নেয়া হয়েছে ১০ হাজার টাকা। জামানতের চেয়ে ১০গুণ বেশি লোন দেয়ার প্রলোভনে পড়ে সঞ্চয় বাবদ এ টাকা দেয় ব্যবসায়ীসহ সাধারণ মানুষ। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। মানুষকে বিশ্বাস করাতে স্থানীয় আবু জাফর বেপারীর মেয়ে নূপুরকে ওই প্রতিষ্ঠানের হিসাব রক্ষকের চাকরি দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেয় এ চক্রটি।