১৮ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

সুনামগঞ্জ ও বাঁশখালী থেকে দুই মানবপাচারকারী আটক


নিজস্ব সংবাদদাতা, সুনামগঞ্জ, বাঁশখালী, ৩০ মে ॥ বাঁশখালীতে পুলিশের অভিযানে মানবপাচারকারীসহ ৪২ জনকে আটক করা হয়েছে। শুক্রবার রাত থেকে শনিবার ভোর পর্যন্ত চলা অভিযানে এদের আটক করা হয়। অভিযানে তিন শ’ লিটার দেশীয় মদসহ দুই মাদক বিক্রেতাকে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার গভীর রাতে সুনামগঞ্জ থেকে এক মানবপাচারকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সূত্র জানায়, বিশেষ অভিযানে বাঁশখালী থানা পুলিশ শনিবার ভোর পর্যন্ত ৪২ জনকে আটক করেছে। এদের মধ্যে ছনুয়া এলাকার চিহ্নিত মানবপাচারকারী ইউনুছ মাঝিও রয়েছে। সে ওই এলাকার মৃত ছৈয়দ আহমদের পুত্র। আটকদের মধ্যে চিহ্নিত ডাকাত ছাড়াও বিভিন্ন মামলার পলাতক ওয়ারেন্টভুক্ত ৩৯ আসামি রয়েছে। আটকদের সবাইকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

বাঁশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) স্বপন কুমার মজুমদার জনকণ্ঠকে বলেন, পুলিশের বিশেষ অভিযানে ছনুয়া এলাকার এক মানবপাচারকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

সুনামগঞ্জে আরও এক মানবপাচারকারী গ্রেফতার ॥ জগন্নাথপুর থেকে খলিলুর রহমান নামে এক মানবপাচারকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার গভীর রাতে আশারকান্দি ইউনিয়নের দাওরাই গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তার পিতার নাম মৃত আব্দুল জব্বার। শনিবার পুলিশ সুপার হারুন-অর রশিদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, জেলায় এ পর্যন্ত ২৬ জনের তালিকা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত তালিকাভুক্ত দুই মানবপাচারকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

উপ-পরিদর্শক মোঃ লুৎফুর রহমান জানান, গ্রেফতারকৃত খলিলুর রহমান দীর্ঘদিন ধরে এলাকার অনেক সাধারণ মানুষকে সমুদ্রপথে মালয়েশিয়া পাঠিয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে শুক্রবার গভীর রাতে মোবাইল ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার সহযোগীরা পুলিশের ওপর হামলা চালায়। এতে এক পুলিশ সদস্য আহত হয়। পুলিশ বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে মানবপাচার প্রতিরোধ আইনে মামলা করেছে। এর আগে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থেকে গত ২৩ মে আবুল কাসেম নামে এক মানবপাচারকারীকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: