২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

হোয়াইট হাউসের লড়াইয়ে রিপাবলিকানদের ভিড়


আগামী বছরের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান পার্টির মনোনয়নের জন্য আটজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। আরও আটজন এ প্রতিদ্বন্দ্বিতায় যোগ দেবেন।

কাজেই ২০১৬ সালের নির্বাচনে দলের ঐকমত্যভিত্তিক প্রার্থী পাওয়ার সম্ভাবনা নেই। খবর এএফপির।

ডেমোক্র্যাটিক পার্টির মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে অগ্রগণ্য হিলারি ক্লিনটন তার মনোনয়ন পাওয়ার বিষয় নিশ্চয়তার আভাস চাচ্ছেন। কিন্তু রিপাবলিকান পার্টির ক্ষেত্রে পরিস্থিতি ভিন্ন। সেখানে সামাজিক রক্ষণশীলরা, সরকারী ব্যয় সংকোচন নীতির সমর্থকরা এবং মধ্যপন্থীরা তাদের নিজ নিজ দর্শনের পক্ষে লড়ে যাচ্ছেন।

গত অর্ধেক শতকের কোন সময়েই এত ভিন্ন ধরনের রাজনীতিকরা কখনও প্রেসিডেন্ট পদে রিপাবলিকান পার্টির মনোনয়ন চাননি। রিপাবলিকান ঐতিহ্য হলো, দলীয় নেতারা তথাকথিত ‘ইমেজারি প্রাইমারি’তে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। সেখানে এস্টাবিলশমেন্ট এক ঐকমত্যভিত্তিক প্রার্থী স্থির করে। এরপর নির্বাচনী বছরের শুরুতে প্রাইমারি প্রতিদ্বন্দ্বিতা শুরু হয়।

এমোরি ইউনিভার্সিটির রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক মারলে ব্ল্যাক বলেন, ২০১৬ সালে রিপাবলিকাদের কোন ঐকমত্যভিত্তিক প্রার্থী নেই।

এর বদলে সেখানে রয়েছেন উইসকনসিনের স্কট ওয়াকারের মতো গবর্নররা এবং প্রথমবারের মতো নির্বাচিত সিনেটর টেড ক্রুজ ও মার্কো রুবিও।

তারপর রয়েছেন হিউলেট প্যাকার্ডের সাবেক প্রধান কার্লি কিওরিনা এবং নিউরো সার্জন ও রাজনীতিতে নবাগত বেন কারসন।

আরকানসাস রাজ্যের সাবেক গবর্নর মাইক হুকাবি, নিউইয়র্কের ৯/১১ হামলার সময়কার গবর্নর জর্জ প্যাটাকি এবং ফ্লোরিডার সাবেক গবর্নর জেন বুশের নামও ভুলে গেলে চলবে না।

রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী ও মিডিয়া ফিগার ডোনাল্ড ট্রাম্পও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার অভিলাষ বারবার ব্যক্ত করে এসেছেন।