২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

নীলফামারীতে ২৯ বছরেও সরকারী স্কুলে ভবন নেই


স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী ॥ নড়বড়ে টিনের চালা, নেই বেড়া বা দরজা জানালা। টিনের ছাউনির গরমে হাঁসফাঁস আর বৃষ্টির পানিতে ভিজে যায় বইখাতা। এ ধরনের চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছে নীলফামারীর কিশোরীগঞ্জ উপজেলার পুটিমারী ইউনিয়নের ধাইজান সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। প্রতিষ্ঠার ২৯ বছরেও বিদ্যালয়টির জন্য ভবন নির্মাণ করা হয়নি বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ।

সরেজমিনে দেখা যায়, বিদ্যালয়টির ঘরের বাঁশের খুঁটিগুলো নড়বড়ে হয়ে গেছে। চালের টিনে ছিদ্র। ভাঙ্গা বেঞ্চে গাদাগাদি করে বসে শিক্ষার্থীরা ক্লাস করছে। চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র আসাদুল মিয়াসহ অন্যন্য শিক্ষার্থীরা জানায়, চাটিবেড়া দরজা জানালাবিহীন ভাঙ্গা স্কুল ঘরে ক্লাস করতে কষ্ট হয়। বৃষ্টি এলে বই-খাতা ভিজে যায়। বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা রহিমা বেগম বলেন, বৃষ্টি এলে টিন চুইয়ে পানি পড়ে। রোদ উঠলে টিনের তাপে ক্লাসে থাকা যায় না। বেঞ্চ সঙ্কটের কারণে শিশুদের এক বেঞ্চে ৫/৬জন করে বসে ক্লাস করতে হয়। আগে ২৩টি বেঞ্চ ছিল, সেগুলো বেশিরভাগ ভেঙ্গে গেছে। এখন ১৭০ জন ছাত্র/ছাত্রীর জন্য মাত্র ১৫টি বেঞ্চ রয়েছে। ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সেকেন্দার আলী বলেন, বিদ্যালয়ের এই করুণ অবস্থার কারণে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় খুবই ক্ষতি হয়। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মাসুদুল হাসান বলেন, আমি প্রধান শিক্ষককে ওই বিদ্যালয়ের বর্তমান অবস্থার ছবি তুলে তা লিখিত আবেদনের সাথে সংযুক্ত করে দিতে বলেছি। আবেদন পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।