২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

মালিকের স্বপ্নীল প্রত্যাবর্তন


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সফল প্রত্যাবর্তনের এমন চিত্রনাট্য চাইলে নিজের হাতে লেখাও সম্ভব নয়, যেমনটা ঘটল শোয়েব মালিকের ক্ষেত্রে। দুই বছর পর দলে ফিরে হাঁকালেন দুরন্ত সেঞ্চুরি, এরপর বল হাতে গুরুত্বপূর্ণ উইকেট নিয়ে হলেন ম্যাচসেরা। লাহোরে জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে পাকিস্তানের প্রথম ওয়ানডে জয়ের গল্পটা তাই হয়ে থাকল কেবলই ৩৩ বছর বয়সী অলরাউন্ডারের। দীর্ঘ ছয় বছর পর ঘরের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পেয়ে পুরো পাকিস্তানজুড়ে এখন উৎসবের আমেজ। আফ্রিদির নেতৃত্বে ২-০তে টি২০ সিরিজ জয়ের পর ওয়ানডেতেও শুরুটা দুর্দান্ত হলো আজহার আলিদের। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৩ উইকেটে ৩৭৫ রানের পাহাড় গড়ে স্বাগতিকরা। ৭৬ বলে ১২ চার ও ২ ছক্কায় ১১২ রানের অনবদ্য ইনিংস উপহার দেন মালিক। এরপর বল হাতে তুখোড় হ্যামিল্টন মাসাকাদজাকে তুলে নিয়ে ৪১ রানের বড় জয়ে অবধারিত ‘নায়ক’ তিনি। তিন হাফ সেঞ্চুরিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান মোহাম্মদ হাফিজ (৮৬), আজহার (৮৯) ও হারিস সোহেলের (৮৯*)। সাবেক অধিনায়ক মালিক পাকিস্তানের হয়ে এর আগে শেষ ওয়ানডে খেলেছিলেন ২০১৩ সালের ১৫ জুন, বার্মিহামে ভারতের বিপক্ষে। সর্বশেষ তিন অঙ্কের দেখা পেয়েছেন ২০০৯-এর ২৬ সেপ্টেম্বর। সেঞ্চুরিয়নে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ম্যাচে চিরশত্রু ভারতের বিপক্ষে করেছিলেন ১২৮ রান। তিন শতাধিক রানের স্কোর গড়া পাকিরা সেদিন পেয়েছিল ৫৪ রানের জয়। মাঝে নদীর জল কত গড়াল, পাকিস্তান ক্রিকেট ও মালিকের জীবনেও ঘটল কত না ঘটনা। প্রাথমিক দলে থাকা সত্ত্বেও খেলা হয়নি অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড বিশ্বকাপে। নিজেকে স্বেচ্ছায় সরিয়ে নেয়ার অভিযোগও তুলেছেন নিন্দুকেরা! বাংলাদেশ সফরে চরম ভরাডুবির পর ফের ঢেলে সাজানো হয় দল। ঘরের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরার ঐতিহাসিক ক্ষণে প্রত্যাবর্তনের সুযোগটা দারুণভাবে কাজে লাগালেন টেনিস সেনসেশন সানিয়া মির্জাকে বিয়ে করে ভারতের জামাই বনে যাওয়া এ শিয়ালকোট ক্রিকেটার। ক্যারিয়ারের ২১৭তম ওয়ানডেতে এটি তার অষ্টম সেঞ্চুরি। এদিন পাকিদের অর্জন ছিল আরও। ৩৭৫/৩Ñ ঘরের মাটিতে পাকিস্তানের দলীয় সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড, যেখানে তারা ওয়ানডেতে প্রথমবারের মতো গড়েছে দু-দুটি ১৫০ বা তদুর্ধ রানের পার্টনারশিপ। ওপেনিংয়ে আজহার-হাফিজ মিলে করেন ১৭০। মালিক বলেছেন, ‘আমি এখনও শিখছি। দলের বাইরে থাকা দীর্ঘ এই সময়টাতে বিশ্বের বিভিন্ন ঘরোয়া টি২০তে খেলেছি। এবার ডাক পাওয়ার পরও ওয়াকার ভাই (কোচ) বলেছেন, একটু চেষ্টা করলে আমার পক্ষে ভাল কিছু সম্ভব। দলের জয়ে অবদান রাখতে পেরে ভাল লাগছে। এ ধারা অব্যাহত রাখতে চাই।’

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: