২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৫ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

মুন্সীগঞ্জে অপসাংবাদিকতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ ও নিন্দা


স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের নাম ভাঙ্গিয়ে বিতর্কিত কতিপয় সংবাদকর্মী নানা কর্মকান্ডে লিপ্ত রয়েছে। তার সাথে মুন্সীগঞ্জের প্রকৃত সাংবাদিক ও প্রেসক্লাব কোনভাবেই জড়িত নয়। অপতৎপরতার মাধ্যমে প্রেসক্লাব কার্যালয় দখল করে রাখা এবং অপসাংবাকিতার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়েছে।

মুন্সীগঞ্জ শহরের মানিকপুরের অন্বেষণ বিক্রমপুর কার্যালয়ের মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের এক সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়। প্রেসক্লাব সভাপতি মীর নাসিরউদ্দিন উজ্জ্বলের সভাপতিত্বে সভায় অধিকাংশ প্রকৃত সাংবাদিকরা অংশ নেন।

এতে প্রথম আলো, ইত্তেফাক, কালের কন্ঠ, ডেইলী স্টার, দৈনিক জনকন্ঠ, দৈনিক সংবাদ, বাংলাদেশ প্রতিদিন, ডেইলী সান, নিউ নেশন, ঢাকা ট্রিবিউন, মানবকন্ঠ, যুগান্তর, দৈনিক মুন্সীগঞ্জের কাগজ, সংবাদ প্রতিদিন, বাংলাদেশ বেতার, চ্যানেল আই, সময় টিভি, ইনডিপেনডেন্ট টিভি, বৈশাখী টিভি, বিটিভি, মাছরাঙা, এটিএন বাংলা, একুশে টেলিভিশন, এশিয়ান টিভি, বাসস, ইউএনবি, বিডিনিউজ২৪.কম, এবিসি রেডিও, রেডিও টুডে, রেডিও আমারসহ দেশের প্রথম সারির বেশীর ভাগ প্রিন্ট ও ইকেট্রনিক মিডিয়ার কর্মরত সাংবাদিকগন।

বিশৃঙ্খলা, অপেশাদারী এবং মাদকসেবী ১১ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে প্রেস কাউন্সিল তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের পত্রের প্রেক্ষিতে স্বার্থনেষী এই মহলটি নিজেদের রক্ষায় নানা অপতৎপরাতা শুরু করেছে বলে সভায় আলোচিত হয়। একই সাথে আন্ডারগ্রাউন্ড ৮ পত্রিকার ডিক্লারেশন বাতিল নিয়েও সাংবাদিকরা আলোচনা করেন।

অপসাংবাকিতার বিরুদ্ধে এবং প্রকৃত সাংবাদিকদের অধিকার রক্ষায় মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের অবস্থান আবারও স্পষ্ট করা হয়। প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক ও প্রথম আলোর প্রতিনিধি তানভীর হাসানের সঞ্চালানায় স্বঃস্ফূর্ত আলোচনায় অংশ নেন সাংবাদিক সালেহীন তুহিন, আতিকুর রহমান টিপু, রাসেল মাহমুদ, মাহবুব আলম লিটন, মো. মাসুদ খান, সাইদুর রহমান টুটুল, বাছিরউদ্দিন জুয়েল, শামসুজ্জামান পনির, ফারহানা মির্জা, এ্যাডভোকেট সেতু ইসলাম, মাসুদুর রহমান, এ্যাডভোকেট লাবলু মোল্লা, সাইফুর রহমান টিটু, তানজীল হাসান ও নজরুল হাসান ছোটন প্রমুখ।