১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

চেন্নাই-মুম্বাই শিরোপা ফয়সালা আজ


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) অষ্টম আসরের পর্দা নামছে আজ। কলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে শিরোপার লড়াইয়ে মুখোমুখি হচ্ছে চেন্নাই সুপার কিংস ও মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। ধুন্ধুমার টি২০’র চূড়ান্ত ফয়সালার লড়াই শুরু বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে আটটায়। শুক্রবার রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে শ্বাসরুদ্ধকর ‘কোয়ালিফাই-২’ ম্যাচে ১ বল বাকি থাকতে ৩ উইকেটের জয়ে ‘দ্বিতীয়’ দল হিসেবে ফাইনালে ওঠে মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই। আর ‘কোয়ালিফাই-১’ এ এই চেন্নাইকেই ২৫ রানে হারিয়ে ‘প্রথম’ ফাইনালের টিকেট পায় রোহিত শর্মার মুম্বাই!

একদিকে ‘ক্যাপ্টেনকুল’ ধোনির সুপার চেন্নাই, অন্যদিকে গ্রেট শচীন টেন্ডুলকরের (মেন্টর) স্নেহধন্য মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের নেতৃত্বে ‘ক্ল্যাসিক্যাল’ রোহিত। ব্যাটিংয়ে ফ্যাফ ডুপ্লেসিস-মাইক হাসি ‘বনাম’ রোহিত-কাইরেন পোলার্ড, বোলিংয়ে আশিষ নেহরা-রবিচন্দ্রন আশ্বিন ‘বনাম’ লাসিথ মালিঙ্গা-হরভজন সিং। জমবে লড়াই সেয়ানে সেয়ানে। আইপিএল ইতিহাসের সফল দল চেন্নাই। ২০০৮ সালের প্রথম আসরেই ফাইনালে উঠে হার মেনেছিল রাজস্থান রয়্যালসের কাছে। ২০১০ ও ২০১১ টানা দুইবার শিরোপা জিতে বাজিমাত করে ধোনি বাহিনী। চেন্নাই ছাড়া দুইবার শিরোপার স্বাদ পেয়েছে কেবল কলকাতা নাইটরাইডার্স (২০১২, ২০১৪)। টানা দুই শিরোপা জয়ের পরই আবার টানা দুইবার রানার্সআপ হয় চেন্নাই (২০১২, ২০১৩), মাঝে ২০০৯ আসরে চতুর্থ। ২০১৪ সালে অর্থাৎ শেষ আসরে তৃতীয় স্থানে ছিল ধোনির দল। এবার আবার ফাইনালে। পরিসংখ্যানই প্রমাণ করে আইপিএলে চেন্নাই কতটা সফল। বিপরীতে ২০১৩ সালে একবারই চ্যাম্পিয়ন হওয়া মুম্বাই রানার্সআপ হয়েছিল ২০১০ সালে। তবে দুইবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ টি২০’র শিরোপা জিতে (২০১১, ২০১৩) ‘লাইমলাইটে’ উঠে আসে রোহিত শর্মারা। এবার দলটির ফাইনালে উঠে আসা সত্যি বিস্ময়কর। আইপিএলে সেরা ‘ইউটার্ন’র ইতিহাসই গড়ে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। গ্রুপপর্বে ১৪ ম্যাচের প্রথম ৬টির মধ্যে ৫টিতে হেরে পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে নেমে যাওয়া, অতঃপর শেষ ৮টির ৭টিতে জয়! অবিশ্বাস্য ঘুরে দাঁড়ানোর অনন্য নজির স্থাপন করে সবার আগে ফাইনালের টিকেট নিশ্চিত করে রোহিত শর্মা বাহিনিী। শেষ চারের লড়াইয়ে ‘কোয়ালিফাই-১’ ম্যাচে শক্তিধর চেন্নাই সুপার কিংসকে ২৫ রানের বড় ব্যবধানে উড়িয়ে দেয়া ইন্ডিয়ান্সরা আজ দ্বিতীয় শিরোপার এক কদম দূরে। দুই ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান তারকা লেন্ডল সিমন্স (৫১ বলে ৬৫) ও কাইরেন পোলার্ডের (১৭ বলে ৪১) দারুণ ব্যাটিংয়ে ৬ উইকেটে ১৮৭ রানের বড় স্কোর গড়ে মুম্বাই। জবাবে ১৬২ রানে অলআউট হয় মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই। ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ম্যাচসেরা হন পোলার্ড। ফাইনালের আগে গ্রুপপর্বে দুইবারসহ মোট তিনবার মুখোমুখি হয় দুই দল, যেখানে দু’বারই জয় মুম্বাইর। প্রথম দেখায় ৬ উইকেটের বড় জয় পেয়েছিল অবশ্য চেন্নাই। মুম্বাইর ১৮৩ রানের জবাবে ১৬.৪ ওভারে ১৮৯ রান তুলে নিয়েছিল চেন্নাই। মাত্র ৩০ বলে ৬২ রান করেছিলেন ওপেনার ডোয়াইন স্মিথ। তবে দ্বিতীয় দেখায় প্রতিশোধ নিয়েছিল মুম্বাই। প্রতিপক্ষকে হারিয়েছিল ঠিক ৬ উইকেটের ব্যবধানে! রোহিতরা ১৬৯ রানের লক্ষ্যে পৌঁছে গিয়েছিল ৪ বল হাতে রেখেই। মাত্র ৮ বলে অপরাজিত ২১ রান করে নায়ক বনে গিয়েছিলেন লোকাল তরুণ হারদিক পান্ডিয়া। ইন্ডিয়ান্সরা সাফল্যের সে ধারা অব্যাহত রাখে শেষ চারেও। ২৫ রানের বড় জয়ে আজ দ্বিতীয় শিরোপার দোরগোড়ায় তারা। মুম্বাইর দ্বিতীয় শিরোপা, না চেন্নাইর রেকর্ড তৃতীয়? ঐতিহাসিক ইডেন গার্ডেন্সে তারই ফয়সালা আজ। ব্যক্তিগত পারফর্মেন্সের কথা বললে অনেকটাই এগিয়ে থাকছে চেন্নাই। যেখানে বড় নাম ডোয়াইন ব্রাভো ও আশিষ নেহরা। ২৪ ও ২২টি করে উইকেট নিয়ে যথাক্রমে টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ ও তৃতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি তারা। সঙ্গে আশ্বিন ও রবিন্দ্র জাদেজার স্পিন মিলিয়ে দারুণ বোলিং-লাইনআপ। জবাবে কম যাবে না মুম্বাই। যৌথভাবে তৃতীয় সর্বোচ্চ ২২ উইকেট লঙ্কান স্পিডস্টার লাসিথ মালিঙ্গা আছেন রোহিতের ভা-ারে। ১৬ উইকেট নিয়ে নতুন করে ঝলসে উঠেছেন অভিজ্ঞ ঘূর্ণিতারকা হরভজন সিং। দারুণ করছেন কিউই পেসার মিচেল ম্যাকক্লেনঘান। ব্যাট হাতে অধিনায়ক রোহিতের (৪৩২) সঙ্গে আছেন এ পর্যন্ত ৪৩ গড়ে ৪৭২ রান করা ক্যারিবিয়ান ওপেনার লেন্ডল সিমন্স। বিপরীতে ১ সেঞ্চুরি ও ২ হাফ সেঞ্চুরির সাহায্যে ৪৩৬ রান করা ব্রেন্ডন ম্যাককুলামকে পাচ্ছে না প্রতিপক্ষ চেন্নাই। টেস্ট খেলতে ইংল্যান্ডে আছেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক। সুতরাং ৩৭৯ রান করা ডুপ্লেসিসের সঙ্গে আগের ম্যাচে জ্বলে ওঠা মাইক হাসির ওপরই আজ বেশি ভরসা করতে হবে ধোনিকে।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: