২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

শততম মঞ্চায়নে ‘প্রাগৈতিহাসিক’


শততম মঞ্চায়নে ‘প্রাগৈতিহাসিক’

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নাগরিক নাট্যাঙ্গনের ২০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শিল্পকলা একাডেমিতে ‘চিত্ত আমার ভয়শূন্য উচ্চ আমার শির’ সেøাগানে চলছে ৮ দিনব্যাপী নাট্যোৎসব। উৎবের চতুর্থ দিন আজ শনিবার মঞ্চস্থ হবে দলের অন্যতম জনপ্রিয় প্রযোজনা ‘প্রাগৈতিহাসিক’। নাটকটির আজ শততম মঞ্চায়ন হবে। মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিখ্যাত গল্প প্রাগৈতিহাসিক অবলম্বনে এর নাট্যরূপ দিয়েছে মাহমুদুল ইসলাম সেলিম। নির্দেশনা দিয়েছেন দেশবরেণ্য নাট্যাভিনেত্রী ও নির্দেশক লাকী ইনাম। নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন মাহমুদুল ইসলাম সেলিম, হৃদি হক, প্রলয় জামান, কামরুজ্জামান রনি প্রমুখ। নাটকের সেট ডিজাইন করেছেন ফয়েজ জহির। আলোক পরিকল্পনায় মো. জসিম উদ্দিন। দল সূত্রে জানা গেছে, নাটক মঞ্চায়ন শেষে নাটকের কলাকুশলীদের মধ্যে যারা অনুপস্থিতি ছাড়া পুরো একশটি মঞ্চায়নে অংশ নিয়েছেন তাদের সম্মাননা দেয়া হবে বলে জানা গেছে। এ উপলক্ষে মঞ্চে শতবার অংশ নেয়ার জন্য নির্দেশনায় লাকী ইনাম, নাট্যকার হিসেবে মাহমুদুল ইসলাম সেলিম, আলোক পরিকল্পনায় মো. জসীম উদ্দীন, মঞ্চ ও শিল্প নির্দেশনায় সাজু খাদেম, শতবার মঞ্চে অভিনয়ের জন্য হৃদি হক, প্রলয় জামান ও কামরুজ্জামান রনি পদক পাচ্ছেন।

এর আগে গত বুধবার বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার প্রধান মিলনায়তনে সন্ধ্যায় ৮ দিনের এ উৎসব উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। উপস্থিত ছিলেন নাট্যজন আতাউর রহমান, মামুনুর রশীদ, নাসিরউদ্দীন ইউসুফ, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ, শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী, নাট্যজন ঝুনা চৌধুরী, বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের সেক্রেটারি জেনারেল আখতারুজ্জামান ও পথনাটক পরিষদের সভাপতি মান্নান হিরাসহ সাংস্কৃতিক অঙ্গনের ব্যক্তিবর্গ। সভাপতিত্ব করেন ড. ইনামুল হক। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আজীবন সম্মাননায় ভূষিত করা হয় দেশের খ্যাতনামা অভিনয়শিল্পী ফেরদৌসী মজুমদার। এতে তিনি একক অভিনয়ও করেন। উৎসবে দেশের ৫টি এবং ভারতের দুটি দল অংশগ্রহণ করছে। উদ্বোধনী দিনে মঞ্চায়ন হয় ঢাকা থিয়েটারের দুটি নাটক ‘গল্প নিয়ে গল্প’ ও ‘ইতি পত্রমিতা’।