২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

দিনাজপুরে বিচারকের নাম ভাঙ্গিয়ে ঘুষ নেয়ায় পুলিশ সাসপেন্ড


স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর ॥ দিনাজপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিচারকের নাম ভাঙিয়ে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে এক পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত ও অফিস পিয়নকে চাকরি থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

অভিযোগে প্রকাশ, দিনাজপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মোঃ আখতার-উল-আলমের নাম করে তাঁর দেহরক্ষী কনস্টেবল আব্দুর রাজ্জাক ও অফিসের পিয়ন আবু সাঈদ বিচারাধীন ১৭০/১৫ মামলার ১নং আসামি আব্দুস সাত্তার বাবুর কাছে জামিন দেয়ার নাম করে বিচারককে টাকা দিতে হবে বলে ১৯ মে সাড়ে ১০ হাজার টাকা গ্রহণ করে। বিষয়টি জানাজানি হলে বিজ্ঞ বিচারক বুধবার সকালে অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য আব্দুর রাজ্জাক ও অফিস পিয়ন আবুু সাঈদকে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদের সময় আনীত ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ সম্পর্কে নিশ্চিত হন। ২ জনই বিচারকের নাম করে ঘুষ নেয়ার কথা স্বীকার করেন। বিজ্ঞ বিচারক তাঁর দেহরক্ষী পুলিশ কনস্টেবল আব্দুর রাজ্জাককে পুলিশ সুপার রুহুল আমিনের হেফাজতে হস্তান্তরের পর তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে বিভাগীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার প্রক্রিয়া চলছে বলে পুলিশ সুপার জানান। আদালতের পিয়ন আবু সাঈদকে চাকরি থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মোঃ আখতার-উল-আলম বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি আজিজুল ইসলাম জুগলু, সাধারণ সম্পাদক একরামুল আমিন, সিনিয়র আইনজীবী মোহাম্মদ ইছাহক, আব্দুল লতিফ, মোঃ ইউসুফ আলী ও সংশ্লিষ্ট বেঞ্চের বিশেষ পিপি দেলোয়ার হোসেন, উল্লেখিত মামলার আসামি পক্ষের আইনজীবী আনিসুর রহমান চৌধুরী ও বাদী পক্ষের আইনজীবী সলিমুল্লাহ প্রমুখের উপস্থিতিতে ঘুষ গ্রহণের ঘটনাটি অবহিত করেন। উপস্থিত আইনজীবীরা অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দুদকে মামলা দায়েরের পরামর্শ দেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: