১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

নিম্নমানের পণ্য মান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ দেখানো ক্ষতিকর: আমু


নিম্নমানের পণ্য মান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ দেখানো ক্ষতিকর: আমু

স্টাফ রিপোর্টার ॥ শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেন, নিম্নমানের বৈদ্যুতিক সারঞ্জাম ও পণ্যকে মান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ দেখিয়ে বাজারজাতকরনের সনদ প্রদান করলে, তা সকলের জন্যে ক্ষতির কারণ হবে। বিষয়টি বিবেচনায় রেখে সব ধরণের পণ্যের গুণগতমান পরীক্ষণ ও নির্ধারণের ক্ষেত্রে বিএসটিআই’র কর্মকর্তাদের স্বচ্ছতা ও পেশাদরিত্বের পরিচয় দিতে হবে।

বুধবার বিশ্ব মেট্রোলজী দিবস উপলক্ষে তেজগাঁওস্থ বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই)-এর প্রধান কার্যালয়ে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিল্পমন্ত্রী এসব কথা বলেন। বিশ্ব মেট্রোলজী দিবসের এ বছরের প্রতিপাদ্য হচ্ছে ‘পরিমাপ ও আলো’।

আমির হোসেন আমু আরও বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন ১৯ হাজার মেগাওয়াটে উন্নীত করা হবে। পাশাপাশি শক্তি সাশ্রয়ের জন্যে বিভিন্ন পদক্ষেপও গ্রহন করা হয়েছে। সারা দেশে ১০ মিলিয়ন বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী বাল্ব সিএফএল বাল্ব বিতরণ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, দেশে শিল্পায়ন কার্যক্রম যত জোরদার হবে, জ্বালানির চাহিদাও তত বাড়বে। বাড়তি চাহিদার যোগান দিতে আলো কিংবা বিদ্যুৎ শক্তির সাশ্রয়ী ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। এ লক্ষ্যে সকল স্থানে জ্বালানি দক্ষ স্মার্ট এনার্জি মিটার ব্যবহার করা প্রয়োজন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এফবিসিসিআই’র সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহমদ বলেন, পরিমাপ ঠিক না করে কোন উন্নয়ন হতে পারে না, ভালো কিছু আবিষ্কার হতে পারে না। বিগত কয়েক বছরে দেশে বিদ্যুতের বেশ উন্নয়ন হয়েছে। শেখ হাসিনার হাত ধরে পরিমাপ ঠিক রাখার অন্যতম প্রতিষ্ঠান বিএসটিআই’এ আধুনিক প্রযুক্তির ছোঁয়া লেগেছে।

ওই আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন ভারপ্রাপ্ত শিল্প সচিব সুশেন চন্দ্র দাস, বিএসটিআই’র মহাপরিচালক ইকরামুল হক প্রমুখ।