২১ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

যুদ্ধাপরাধের মামলায় মহিদুর ও চুটুর আমৃত্যুকারাদণ্ড


যুদ্ধাপরাধের মামলায় মহিদুর ও চুটুর আমৃত্যুকারাদণ্ড

স্টাফ রিপোর্টার ॥ একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় চাঁপাইনবাবগঞ্জের মাহিদুর রহমান ও আফসার হোসেন চুটুকে আমৃত্যুকাদণ্ড দিয়েছে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২।

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ এলাকায় অপহরণ, হত্যা নির্যাতনের সুনির্দিষ্ট তিনটি অভিযোগ রয়েছে এই দুজনের বিরুদ্ধে। এর মধ্যে ১ নম্বর অভিযোগে আমৃত্যুকাদণ্ড এবং দুই নম্বর অভিযোগে পাঁচ বছর কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে রায়ে। এছাড়া তিন নম্বর অভিযোগ প্রমানিত না হওয়ায় তা গ্রহণ করেনি ট্রাইব্যুনাল।

বুধবার করানিরাপত্তার মধ্য দিয়ে বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বাধীন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ এ রায় ঘোষণা করেন।

রায় ঘোষনার আগে সকাল ৮টা ২৪ মিনিটে দুই আসামিকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে ট্রাইব্যুনালে নিয়ে আসা হয়।

২০১৪ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর শিবগঞ্জের দুর্লভপুর ইউনিয়ন থেকে মাহিদুর এবং বিনোদপুর থেকে আফসারকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ওই বছর ১১ ডিসেম্বর অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে তাদের বিচার শুরু হয়।

তদন্ত সংস্থার তথ্যানুযায়ী, ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় এই দুজন বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে অস্বীকার করে পাকিস্তানি দখলদার বাহিনীকে সহযোগিতা করার জন্য সশস্ত্র রাজাকার বাহিনীতে যোগ দেন।

সশস্ত্র প্রশিক্ষণ শেষ করার পর অস্ত্র ও প্রয়োজনীয় সংখ্যক গুলি সংগ্রহ করে অন্যান্য রাজাকারের সঙ্গে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার আদিনা ফজলুল হক ডিগ্রি কলেজ দখল করে রাজাকার ক্যাম্প স্থাপন করে এলাকায় হত্যা, লুণ্ঠন, অগ্নিসংযোগের মতো মানবতাবিরোধী অপরাধ ঘটান।