২৪ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ডুবতে দেখলেও সাহায্য না করার নির্দেশ!


অনলাইন ডেস্ক‌॥ সাগরে ডুবতে দেখলেও অভিবাসীদের তীরে না তুলতে জেলেদের নির্দেশনা দিয়েছে ইন্দোনেশিয়া কর্তৃপক্ষ। একই সঙ্গে ওই অঞ্চলে সাগরে ভাসতে থাকা অভিবাসীদের নৌকাগুলোর আরোহীদের কোন রকম সাহায্য না করতেও জেলেদের বলে দেয়া হয়েছে। খবর বিবিসির

মঙ্গলবার বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ধারণা করা হচ্ছে কয়েক হাজার অভিবাসী দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার উপকূলে সাগরে ভাসছে।

থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, এবং ইন্দোনেশিয়া এই অভিবাসীদের বহনকারী নৌকাগুলো তীরে ভিড়তে দিচ্ছে না।

জাতিসংঘ এর আগে খাবার ও পানির তীব্র সংকটে থাকা এসব অভিবাসীকে তীরে ভিড়তে দেবার আহ্বান জানিয়েছিল।

উদ্ধারকৃত অভিবাসীদের মধ্যে রয়েছে শিশুরাও।

কিন্তু এখন জাতিসংঘ বলছে, কোন দেশই তা মানছে না।

জীবনের ঝুঁকিতে থাকা এসব অভিবাসীদের বিষয়ে দেশগুলোর এমন কঠোর অবস্থান কেন?

মালয়েশিয়াভিত্তিক অভিবাসন বিষয়ক সংস্থা কারাম এশিয়ার সমন্বয়ক হারুন আর রশিদ বিবিসিকে বলেন দেশগুলো ভাবতে পারে যে তীরে ভিড়তে দিলে আরও লোকজন আসতে পারে তবে মানবিক কারণেই তাদের তীরে আসতে দেয়া উচিত।

তবে এর আগে মানবপাচারের উৎসদেশগুলোর একটি হিসেবে বাংলাদেশ সরকারেরও কোন উদ্যোগ দেখা যায়নি মানবপাচার বন্ধে।

তিনি বলেন সংকট নিরসনে জাতিসংঘ বা আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর উদ্যোগ ঠিক কাজ করছেনা। এ অবস্থা চলতে থাকলেও তো ভবিষ্যতে মানবিক কোন বিপর্যয়ে তো সহায়তা করতে কেউই এগিয়ে আসবেনা।

যারা এখন অবৈধ অভিবাসীদের তীরে ভিড়তে দিচ্ছেনা তাদের নাগরিকদের ক্ষেত্রে হলে কি হবে সেটিও তাদের ভেবে রাখা উচিত বলে মন্তব্য করেন তিনি।

হারুণ বলেন মিয়ানমারকেও রোহিঙ্গাদের স্বীকৃতি দিতে হবে না হলে এরা যাবে কোথায়। আন্তর্জাতিক বিশ্বকেও এ বিষয়ে চাপ প্রয়োগ করা উচিত।