২০ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

হবিগঞ্জে সংখ্যালঘু কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের পর হত্যা


নিজস্ব সংবাদদাতা, হবিগঞ্জ, ১৭ মে ॥ হবিগঞ্জের উপজেলা মাধবপুরের পল্লী রামেশ্বরে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের যুবতী কন্যা কলেজছাত্রী শিল্পী রানীকে (১৮) ধর্ষণের পর হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় রবিবার দুপুরে মাধবপুর থানায় একটি মামলা হয়েছে।

পুলিশ ও মামলার বিবরণে জানা গেছে শুক্রবার রাতের খাবার খেয়ে নিজ শয়ন কক্ষে ঘুমিয়ে পড়ে শিল্পী রানী। শনিবার সকালে পরিবারের লোকজন তাকে শয়ন কক্ষে না পেয়ে শুরু করে খোঁজাখুঁজি। কিন্তু কোথাও তাকে না পেয়ে তারা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন। পরবর্তীতে ওই দিনই পরনের কাপড় ছেঁড়া অবস্থায় তার রক্তাক্ত ক্ষত বিক্ষত মৃতদেহ স্থানীয় একটি ঢ়েড়শ ক্ষেতে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা। এ খবর পেয়ে শিল্পীর মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ সময় শিল্পীর গলা, গালে ও বুকে একাধিক আঘাতের চিহ্ন দেখে হতবাক পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন। পরে ময়নাতদন্তের জন্য তার শিল্পীর মৃতদেহ হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে প্রেরণ করে পুলিশ। রবিবার দুপুরে নিহতের পিতা বিনীত সরকার বাদী হয়ে মাধবপুর থানায় একটি হত্যামামলা দায়ের করেন। পুলিশের ধারণা, শিল্পীকে বাড়ি থেকে উঠিয়ে নিয়ে ওই ক্ষেতে ধর্ষণের পর নির্মমভাবে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনার পর সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের পরিবারগুলোতে বিরাজ করছে আতঙ্ক।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: