২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ডিমলা উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে পুলিশের জিডি


স্টাফরির্পোটার,নীলফামারী॥ সরকারী কাজে বাঁধা প্রদান ও পুলিশকে হুমকি দেয়ার অভিযোগে নীলফামারীর ডিমলা উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানে আয়শা সিদ্দিকার বিরুদ্ধে থানায় জিডি (সাধারন ডায়রী) দায়ের করা করেছে। শুক্রবার রাতে ডিমলা থানায় জিডি করেন ওই থানার এএসআই শাহজাহান আলী।

জিডিতে উল্লেখ করা হয় গত ৫ জানুয়ারী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় ডিমলার একটি ভোট কেন্দ্রে হামলার ঘটনার চার্জশীটভুক্ত প্রধান আসামী ডিমলা উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মহিলা জামায়াতের নেত্রী আয়শা সিদ্দিকার স্বামী আল কদর (৩৮)কে সীমা সিনেমা হল সংলগ্ন বাসা থেকে গ্রেফতার করতে পুলিশ অভিযান চালায়। এ সময় জামায়াতের নেত্রী উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়শা সিদ্দিকা পুলিশকে বাসার ভিতরে প্রবেশ ও আসামী গ্রেফতারে বাঁধা প্রদান করতে থাকে। এমন কি দীর্ঘ এক ঘন্টা তার বাড়ীর প্রধান ফটকে আটকে রেখে এবং গ্রেফতার অভিযানে নেতৃত্বদানকারী ডিমলা থানার এসআই তাজুল ইসলামের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরন এবং হুমকী প্রদান করেন। এ সময় আয়শা সিদ্দিকা দাম্ভিকের সাথে চিৎকার করে পুলিশের উদ্দেশ্যে বলেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের স্বামীকে গ্রেফতার করা সহজ বিষয় নয়। তাই সরকারী কাজে বাঁধা প্রদান ও পুলিশের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরন করায় ডিমলা থানার এএসআই শাহজাহান আলী শুক্রবার রাতে ডিমলা থানার জিডি নং-৬০৭ (তারিখ-১৫/০৫/১৫ইং) দায়ের করে। উল্লেখ যে পুলিশ ওই অভিযানে উক্ত উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের স্বামীকে গ্রেফতার করে।

ডিমলা থানায় অফিসার ইনচার্জ রহুল আমিন খান জানায়, নিবাচর্নী মামলায় আল কদরকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। আর তাকে গ্রেফতারের সময় সরকারী কাজে বাধা ও পুলিশকে হুমকি প্রদানের ঘটনায় গ্রেফতারকৃত আল কদরের স্ত্রী ডিমলা উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জামায়াতের মহিলা নেত্রী আয়শা সিদ্দিকার বিরুদ্ধে থানায় জিডি দায়ের করা হয়েছে। জিডিটি আদালতের অনুমতি ক্রমে তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।