২২ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৫ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

সেরা বিক্রির তালিকায় ‘ডাইজেস্ট’


মার্কিন কবি গ্রেগরি পার্ডলোর দ্বিতীয় কাব্যগ্রন্থ ‘ডাইজেস্ট’। বইটি প্রকাশিত হয় ২০০১৪ সালে। বই বিক্রির তালিকায় এ বইয়ের নাম এক শীর্ষ দশের তালিকায়। তবে এ বইয়ের জন্য খুব সহজেই প্রকাশক পেয়েছেন পার্ডলো- এমন নয়। বড় বড় প্রকাশকের কাছ থেকে ফেরত এসেছে তাঁর পা-ুলিপি। এখানকার কবিতাগুলো তিনি লিখে শেষ করেন ২০১০ সালে। তারপর থেকেই পাঠাতে থাকেন বিভিন্ন প্রকাশকের কাছে। কিন্তু তখন তাঁর কবিতা সেসব প্রকাশকের নজরে পড়েনি। অবশেষে ২০১৪ সালের শরতে ফোরওয়ে বুকস নামের একটি ছোট প্রকাশনা থেকে প্রকাশ করা হয় কাব্যগ্রন্থটি। এ কাব্যগ্রন্থের কবিতাগুলোর পটভূমি হিসেবে ব্যবহার করেছেন ব্রুকলিন। সেখানকার জীবনের বর্তমান চালচিত্রসহ আরও দূরের চিত্রও মিশে গেছে তাঁর কবিতায়। সে দূরত্ব হতে পারে স্থানের, হতে পারে কালের কিংবা পাত্রের। রবার্ট ফ্রস্টের কবিতার মতো তাঁর কবিতায় একই সঙ্গে আমেরিকার জীবনের বিশেষ চিত্রের মাধ্যমে হাজির করা হয় বিশ্বজনীন, চিরন্তন কথা। ২০১০ এবং ২০১৪ সালে তাঁর কবিতা বেস্ট আমেরিকান পোয়েট্রি পুরস্কার পায়। এর আগে পরে আরও অনেক দেশি ও আন্তর্জাতিক পুরস্কার তিনি পেয়েছেন। সর্বশেষ পেলেন ২০১৫ সালের পুলিৎজার পুরস্কার। এ পুরস্কার পাওয়ার সময় এ্যালান সাপিরো এবং আর্থার সির সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এগিয়ে এসেছেন গ্রেগরি পার্ডলো। ১৯৬৮ সালে পার্ডলোর জন্ম। তিনি মূলত কবি হলেও একজন বোদ্ধা সাহিত্যসমালোচক, অধ্যাপক এবং অনুবাদক। তাঁর প্রথম কাব্যগ্রন্থের নাম ‘টোটেম’। এটি প্রকাশ করেন ২০০৭ সালে।

অঞ্জন আচার্য, ইন্টারনেট অবলম্বনে

জোসুয়া ওজারস্কির প্রয়াণ

মার্কিন লেখক, ইতিহাসবিদ জোসুয়া ওজারস্কি আর নেই। মাত্র ৪৭ বছর বয়সে আমেরিকার শিকাগো শহরের একটি হোটেলে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন এ লেখক। নিজের কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ জেমস বিয়ার্ড ফাউন্ডেশন থেকে পুরস্কার গ্রহণ করতে নিউইয়র্ক থেকে এসেছিলেন তিনি। স্মিথসনিয়ান চ্যানেল এ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত এ লেখক সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় তাঁর খাদ্যবিষয়ক লেখালেখি বিষয়ে। লেখকের এ অকাল প্রয়াণে বিভিন্ন মহলে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। বিভিন্ন পত্রিকায় কলাম লিখতেন ওজারস্কি। বিশ্বখ্যাত ‘টাইমস’ পত্রিকার প্রদায়ক ছিলেন তিনি। বহু গ্রন্থের প্রণেতা ওজারস্কি।